কলকাতা: কবি শ্রীজাত ও মন্দাক্রান্তা সেনকে হুমকি নিয়ে এবার মুখ খুললেন লেখিকা তসলিমা নাসরিন। বাক স্বাধীনতার প্রশ্ন তুলে মন্দাক্রান্তা ও শ্রীজাতকে সমর্থন করলেও শ্রীজাতকে পাল্টা খোঁটা দিতে ছাড়েননি তিনি।

তসলিমা বলেন, শ্রীজাতর কবিতা কট্টরপন্থীদের নিশানা করলেও মানুষের বাক স্বাধীনতা থাকা উচিত। পাশাপাশি তিনি সংবাদ সংস্থাকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে বলেন, ২০০৭ সালে মুসলিম মৌলবাদীরা ‌যখন আমাকে বাংলাছাড়া করেছিল তখন শ্রীজাতরা নীরব ছিলেন কেন? তা হলে কি শ্রীজাতরা বেছে বেছে মৌলবাদীদের বিরুদ্ধে সরব হন?সম্প্রতি কবি শ্রীজাতকে সমর্থন করার জন্য কবি মন্দাক্রান্তা সেনকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ধর্ষণের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। ওই ঘটনার পরই শ্রীজাতর বিরুদ্ধে মুখ খোলেন তসলিমা।

উল্লেখ্য, শ্রীজাত তাঁর কবিতা ‘অভিশাপ’-এ উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে নিশানা করেছেন বলে অভি‌যোগ এনেছেন অর্ণব সরকার নামে এক ব্যক্তি। শ্রীজাতর বিরুদ্ধে এফআইআরও করেছেন তিনি। শ্রীজাতর বিরুদ্ধে কট্টরপন্থীদের হুমকি সম্পর্কে বলতে গিয়ে তসলিমা সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছেন, ‘আমি শ্রীজাত ও মন্দাক্রান্তার পাশে আছি। কারণ, আমি বাক-স্বাধীনতাকে সমর্থন করি। কিন্তু ওঁরা কোথায় ছিলেন ২০০৭ সালে যখন আমাকে জোর করে পশ্চিমবঙ্গ থেকে বের করে দেওয়া হয়?’

এখানেই থেমে থাকেননি তসলিমা। খাগড়াগড় বিস্ফোরণ, ধূলাগড়ের হিংসা, রাজ্যে বিভিন্ন সময়ে ঘটা গণধর্ষণ নিয়েও শ্রীজাতকে নিশানা করেছেন। তাঁর মন্তব্য, ‌যখন মৌলবাদীদের বিরুদ্ধে বলতে হয় তখন হিন্দু-মুসলিম-খ্রিষ্টান দেখলে হয় না।

জেলবন্দি তথাকথিত অপরাধীদের আলোর জগতে ফিরিয়ে এনে নজির স্থাপন করেছেন। মুখোমুখি নৃত্যশিল্পী অলোকানন্দা রায়।