স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: জর্জ বেকারের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল বাংলাদেশি লেখিকা তসলিমা নাসরিনের। রয়েছে তাঁদের এক সন্তানও। খবরটি সামনে এনেছেন, খোদ তাঁদের মেয়ে অঙ্কিতা। বিজেপি সাংসদের এই অবৈধ মেয়ের খবরে তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি। সাংসদ জর্জ বেকার এখনও পর্যন্ত এই বিষয়ে মুখ না খুললেও, অভিযোগ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট লিখলেন তসলিমা। জর্জের সঙ্গে সম্পর্কের অভিযোগ কার্যত উড়িয়ে দেন তিনি। পরে আবার এডিট করলেন সেই পোস্ট।

শুক্রবার সকালে এই অভিযোগ সামনে আসে। সাংবাদিক বৈঠক করে অঙ্কিতা ভট্টাচার্য নামে ওই তরুণি দাবি করেন, তাঁর বাবা জর্জ বেকার, মা তসলিমা। কেউই তাঁর সঙ্গে থাকেননি কোনোদিন। গৌরী নামে এক মহিলার কাছে তিনি মানুষ হয়েছেন।

আরও পড়ুন: #BigBreaking- বিজেপি সাংসদ-তসলিমা ‘অবৈধ’ সম্পর্ক ফাঁস করল মেয়ে

এই অভিযোগ সামনে আসার কয়েক ঘণ্টা পর তসলিমা একটি পোস্ট করেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানে লেখেন, ”জর্জ বেকার কে তাই তো চিনি না, তার সাথে ছিল নাকি অবৈধ সন্তান আমার।” তিনি আরও জানান যে, তাঁর সম্পর্কে সঠিক তথ্য জানতে গেলে তাঁর আত্মজীবনী পড়তে হবে।

বিকেল সাড়ে ৫টা নাগাদ সেই পোস্ট করেন তিনি। এরপর তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তাঁর তরফ থেকে কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন: জর্জ-তসলিমা সম্পর্ক ফাঁস, নড়েচড়ে বসল নয়াদিল্লি

কিন্তু এর ঠিক ঘণ্টাখানেক পরই সেউ লম্বা পোস্ট মুছে যায় তাঁর ওয়াল থেকে। সংবাদের লিংক পোস্ট করে নিছকই ক্যাপশনে লেখেন, ”হায় হায়, এইসব কী শুনি!” অর্থাৎ অভিযোগটা আদৌ উড়িয়ে দিলেন, নাকি আংশিক মেনে নিলেন তা ঠিক স্পষ্ট হল না। সবসময় সোজা-সাপটা কথা বলা তসলিমা কেন নিজের পোস্ট এডিট করলেন, তা নিয়েই বাড়ছে জল্পনা। অন্যদিকে, ফোন তুলছেন না জর্জ বেকারও।

ঘটনার সত্য-মিথ্যা প্রমাণ হয়নি ঠিকই। তবে অঙ্কিতার কাছে থাকা তাঁর ছেলেবেলার ছবি, যেখানে তসলিমার উপস্থিতি স্পষ্ট, সেটা নিয়েই বাড়ছে অস্বস্তি। মা অর্থাৎ তসলিমাকে মনে থাকলেও, বয হওয়ার পর আর তাঁর সঙ্গে কোনোদিন যোগাযোগ হয়নি বলেই জানিয়েছেন অঙ্কিতা। তবে জর্জ বেকারের সঙ্গে নাকি বাবা-মেয়ের স্নেহের সম্পর্ক ছিল বলেই জানিয়েছেন অঙ্কিতা। যদিও বড় হওয়ার পর আর কখনও আসেননি জর্জ। ফোনে কথা বলতেন শুধু। অঙ্কিতার দুটি সার্টিফিকেট নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। ছেলেবেলায় কেন মুখ কাপড়ে ঢেকে রাস্তায় বেরতে হত অঙ্কিতাকে? প্রশ্ন তুলছেন তিনি।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV