নয়াদিল্লি: দেশে বিদ্যুৎ ক্ষেত্রে নানা রকম সরঞ্জামের বিষয় পরনির্ভরতা কমানো দরকার। সেই কথা ভেবে এই ক্ষেত্রে বিভিন্ন সরঞ্জাম উৎপাদন কেন্দ্র গড়তে টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে। এমনটাই জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎ মন্ত্রী আর কে সিং ।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বক্তব্য , দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদনে জোর দিতে হবে এবং বিদেশি সংস্থার উপর নির্ভরতা কমাতে হবে। যাতে ওইসব প্রয়োজনীয় যন্ত্রাংশ‌ও সরঞ্জাম‌ আমদানি কমানো যায়। এই ব্যাপারে নজর দিয়েছে কেন্দ্র বলে তিনি জানান। এই ক্ষেত্রে উৎপাদন বাড়াতে পারা গেলে ‌ দেশের ভিতরে কাজের সুযোগ বৃদ্ধি পাবে বলে তার অভিমত।

গত কয়েক মাস ধরে ভারত চিন সীমান্ত ঘিরে উত্তেজনা দেখা যাচ্ছে। মাঝে মঝেই দু দেশের সীমান্তে সংঘর্ষ গুলি গোলা চলতে দেখা যাচ্ছে। যার জন্য ইতিমধ্যেই দেশ জুড়ে চিনা পণ্য বয়কটের‌ আওয়াজ উঠেছে। বলা হয়েছে আত্মনির্ভর হতে। তারই জেরে সম্প্রতি রাখির দিন এবার চিনা রাখি বিক্রি করেনি ব্যবসায়ী সংগঠন গুলি।

এদিকে আর বিদ্যুৎ শিল্পে যন্ত্র বা যন্ত্রাংশ আমদানিতে সায় দিতে চাইছে না কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎ মন্ত্রী এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন। পাশাপাশি তার বক্তব্য, দেশে অন্তত তিন চারটি উৎপাদন কেন্দ্র তারা গড়ে ফেলতে চান। সেখানে উৎপাদনে এগিয়ে এলে সংস্থাগুলিকে সস্তায় জমি থেকে বিদ্যুৎ দিয়ে সহায়তা করা হবে বলে তিনি ইঙ্গিত দেন। তাছাড়া ওই কেন্দ্রগুলিতে কমন টেস্টিং সেন্টার গড়ার কথা বলা হয়েছে।

তাছাড়া বিদ্যুৎ মন্ত্রী জানিয়েছেন , কেন্দ্র সদা সতর্ক দৃষ্টি রাখছে সাইবার হানার ব্যাপারে কারণ পাছে বিদ্যুৎ কেন্দ্র সাইবার আক্রমণ হয়। যেহেতু দেশের বিদ্যুৎ পরিষেবা ব্যবস্থা একটা গ্রিডে ধরে রাখা হয় সেহেতু কোথাও তা বসে গেলে বাকি জায়গাতেও অন্ধকার নেমে আসবে। এইজন্য সব রকম আমদানির ক্ষেত্রে কড়া নজরদারি প্রয়োজন হচ্ছে। মন্ত্রী জানিয়েছেন, ঝুঁকির আশঙ্কা রয়েছে এমন দেশ থেকে পণ্য আমদানি একেবারেই করা উচিত নয়।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।