ওয়াশিংটন: বড়সড় পদ তাঁর৷ খোদ প্রেসিডেন্টের দল রিপাবলিকান পার্টির টেক্সাসের গুরুত্বপূর্ণ নেতা৷ সঙ্গে রয়েছে মার্কিন মুলুকের অ-মার্কিন ভারত-পাকিস্তানি বংশোদ্ভূতদের ভোট৷ তবুও তাঁকে তাড়াতে চাইছে দল৷ কারণ এই মুসলিম রাজনীতিক আমেরিকার আইনের থেকেও উপরে রাখেন তাঁর ধর্মকে৷ এসব নিয়ে প্রবল বিতর্কে জড়িয়েছেন ট্যারেন্ট কাউন্টির রিপাবলিকান নেতা শাহিদ সফি৷

তবে স্থানীয় কিছু সংবাদ মাধ্যমের খবর, শাহিদ সফি শুধু মুসলমান বলেই তাঁকে দল থেকে তাড়ানোর চেষ্টা চালাচ্ছে প্রতিপক্ষ গোষ্ঠী৷ ঘটনায় আলোড়িত টেক্সাস৷ এদিকে শাহিদ পাল্টা অভিযোগ করেছেন, আমাকে পছন্দ করেননা এমন কিছু নেতা রয়েছেন, যারা ধর্মকে হাতিয়ার করে বিতর্ক খুঁচিয়ে তোলে৷ কোনওবারেই তারা সফল হবে না৷ এবারেও তাদের সেই আশা পূরণ হচ্ছে না৷

টেক্সাসের বাসিন্দা শাহিদ সফির জন্ম ভারতে৷ পরে তিনি পাকিস্তানে চলে যান৷ সেখানেই শিক্ষা সম্পূর্ণ করে পাড়ি জমান আমেরিকায়৷ তার পরে সেখানকার নাগরিকত্ব পান৷ সার্জেন হিসেবে তিনি সুপরিচিত৷ পেশার পাশাপাশি রিপাবলিকান পার্টির হয়ে মার্কিন রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন৷ টেক্সাসেরে ট্যারেন্ট কাউন্টিতে তাঁর প্রতিপত্তি রয়েছে৷ দলেরই সাউথলেক সিটি কাউন্সিলের সদস্য তিনি৷

ওয়াশিংটন পোস্টকে এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, ধর্মকে জড়িয়ে আমার সঙ্গে যা ঘটানো হচ্ছে তা দুর্ভাগ্যজনক৷ আমি মুসলমান বলেই আমাকে হেনস্থা করার চেষ্টা হচ্ছে৷ ২০০৯ সাল থেকে মার্কিন মুলুকে রয়েছেন সফি৷