ফাইল ছবি

কাবুল : উত্তর আফগানিস্তানের কুন্দুজে হামলার আগে ধরা পড়ল হামলাকারীরা৷ আফগানিস্তানে এসব হামেশাই ঘটে থাকে৷ কিন্তু এবারের ঘটনা কিছু আলাদা৷ হামলাকারীরা এবার ধরা পড়ার ভয়ে বোমা লুকিয়েছিল ৪ মাসের এক শিশুর জামায়৷

এমন ঘটনার কথা আগে শোনা যায়নি৷ জঙ্গিদের এমন কাজে হতবাক নিরাপত্তা রক্ষীরাও৷ তাঁরা জানিয়েছেন, জঙ্গিরা কুন্দুজে বিস্ফোরণ ঘটাতে চেয়েছিল৷ রাস্তায় নিরাপত্তা রক্ষীদের হাতে যেন কোনওভাবেই সেই বিস্ফোরক ধরা না পড়ে, তার জন্য চেষ্টার কসুর করেনি তারা৷ এর জন্য ৪ বছরের এক শিশুকে কাজে লাগাতেও তারা দ্বিধা করেনি৷ ৪ বছর শিশুর জামায় বিস্ফোরক লুকিয়ে রেখেছিল তারা৷ কিন্তু শহরে প্রবেশের আগে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে৷ মোচ ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়৷ তাদের মধ্যে একজন মহিলা৷

ইন্ডিপেন্ডেন্ট হিউম্যান রাইটস কমিশনের ডেপুটি চিফ শ্বেতা আবুলরাহিজাই জানিয়েছেন, ইসলাম ধর্মে শিশুদের বিস্ফোরণের কাজে ব্যবহার করা নিষিদ্ধ৷ একটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, আবুলরাহিজাই আরও বলেছেন, সশস্ত্র যুদ্ধের কাজে শিশুদের ব্যবহার সবচেয়ে নৃশংস ও দোষের কাজ৷ ইসলামে এই ধরনের কাজ স্পষ্টভাবে নিষিদ্ধ৷ দেশের আইনেও এর প্রভাব পড়বে বলে মনে করেন তিনি৷

মধ্য আফগানের ঘাজনিতে লড়াইয়ে ৬ শিশুর মৃত্যু হয়৷ অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়েছে৷ গত সপ্তাহে কাবুলের ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে জঙ্গিহানায় ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে৷