চেন্নাই: চলতি আইপিএলের চতুর্থ ম্যাচে প্রথম জয় পাওয়ার ২৪ ঘন্টা কাটতে না কাটতেই সানরাইজার্স শিবিরে ধাক্কা। ফ্র্যাঞ্চাইজি দলের বাঁ-হাতি পেসার টি নটরাজন চোটের কারণে ছিটকে গেলেন বাকি টুর্নামেন্টের জন্য। হাঁটুর চোটে এবারের আইপিএল এখানেই শেষ দক্ষিণী পেসারের। অস্ট্রেলিয়া সফরে পাওয়া পুরনো হাঁটুর চোট মাথাচাড়া দেওয়ায় শেষ দু’টো ম্যাচেও খেলতে পারেননি নটরাজন। পরিবর্ত হিসেবে খেলেছিলেন খলিল আহমেদ।

সেই হাঁটুর সমস্যাই বড়সড় আকার নেওয়ায় গোটা আইপিএল থেকেই এবার ছিটকে যেতে হল গত মরশুমে সাড়া জাগানো এই বাঁ-হাতি পেসারকে। তৃতীয় ম্যাচে একাদশে না থাকার পর থেকেই নটরাজনের চোট নিয়ে উদ্বেগ বাড়ছিল। মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ম্যাচের পর ফ্র্যাঞ্চাইজির মেন্টর ভিভিএস লক্ষ্মণ জানিয়েছিলেন, ‘দুর্ভাগ্যবশত হাঁটুর ব্যথায় একাদশ থেকে বাদ পড়েছে নটরাজন। ও ম্যাচ ফিট না থাকায় আমরা খলিল আহমেদের কথা ভেবেছি। আমরা নটরাজনের হাঁটুর ব্যথার মূল্যায়ণ করছি নিয়মিত। আমার মনে হয় দলের মেডিক্যাল স্টাফেরা নটরাজন এবং ফ্র্যাঞ্চাইজির জন্য সঠিক সিদ্ধান্তই গ্রহণ করবেন।’

এরপর বুধবার পঞ্জাব কিংসের বিরুদ্ধেও দলে না থাকায় উদ্বেগ আরও বাড়ে। পঞ্জাব ম্যাচ জিতে অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার বলেন, ‘যা পরিস্থিতি তাতে নটরাজন এখন হাঁটুর স্ক্যান করাতে গেলে তাকে জৈব বলয় ছেড়ে বেরোতে হবে। স্বাভাবিকভাবেই ফিরে সাতদিনের কোয়ারেন্টাইন সেরে তাকে পুনরায় জৈব বলয়ে প্রবেশ করতে হবে। তাই আমরা সবরকম পরিস্থিতির দিকে নজর রাখছি। ফিজিওরা তাদের সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করছেন। তবে একটা সময়ে গিয়ে তাঁর স্ক্যানের প্রয়োজন আছে বলেই মনে হচ্ছে।’

আশঙ্কায় সিলমোহর দিয়ে বৃহস্পতিবার দেশের সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমকে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ সিইও কে সন্মুগম নটরাজনের আইপিএল থেকে ছিটকে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। উল্লেখ্য, ২০২০ মরুশহরে অনুষ্ঠিত আইপিএলে নটরাজনের ইয়র্কারে মোহিত হয়েছিল ক্রিকেটদুনিয়া। ২০২০ ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের সাফল্যকে ঘিরেই এরপর তাঁর কেরিয়ারে জোয়ার আসে। প্রাথমিকভাবে অস্ট্রেলিয়া সফরের জন্য নেট বোলার হিসেবে নির্বাচিত হলেও পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে স্কোয়াডে অন্তর্ভুক্ত হয়েছিলেন এই দক্ষিণী পেসার।

শুধু অন্তর্ভুক্ত হওয়াই নয়। অস্ট্রেলিয়া সফরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সবক’টি ফর্ম্যাটে অভিষেক হয়েছিল তাঁর। দেশের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে একই সফর বা সিরিজে এই ঘটনা সর্বপ্রথম। অস্ট্রেলিয়া সফর থেকে ফিরে কাঁধের চোটে কাহিল নটরাজন প্রায় দু’মাস এনসিএ’তে রিহ্যাব সেশনের পর ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজে খেলেছিলেন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.