কিষনগঞ্জ: বিজেপি শিবিরে তীব্র আতঙ্ক। দলের তারকা প্রচারক ও অন্যতম সংখ্যালঘু নেতা সৈয়দ শাহনওয়াজ হুসেন করোনায় আক্রান্ত। এই সংবাদ আসতেই মুষড়ে পড়ছেন কর্মীরা। সামনের সপ্তাহেই ভোট শুরু হচ্ছে।

শাহনওয়াজের সঙ্গে প্রচার করায় করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা উপমুখ্যমন্ত্রী সুশীল কুমার মোদী এবং সারন কেন্দ্রের সাংসদ রাজীব প্রতাপ রুডির। দুই তারকা প্রচারক চলে গিয়েছেন কোয়ারেন্টাইনে। ২৮ অক্টোবর থেকে বিহার বিধানসভার নির্বাচন শুরু। তার আগেই তারকা প্রচারক প্রাক্তন মন্ত্রীর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন।

শাহনওয়াজ হুসেন কিষণগঞ্জের সাংসদ। তাঁর এলাকায় ভোট হচ্ছে দ্বিতীয় দফায়। নিজেই টুইট করে করোনা সংক্রমণের কথা জানিয়েছেন সৈয়দ শাহনওয়াজ হুসেন। তাঁর রিপোর্ট পজিটিভ। কেয়ারেন্টাইনে চলে গিয়েছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে ২৩ তারিখ থেকে বিহারে লাগাতার প্রচারে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাঁর সঙ্গে একই মঞ্চে থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। ইতিমধ্যেই বিহারে প্রচার শুরু করেছেন এনডিএ, বিরোধী মহাজোট ও অন্যান্য জোটের তারকা প্রচারকরা।

উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ, মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশ এনডিএ শিবিরের হয়ে জনসভা করেছেন।

উত্তর প্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মায়াবতী প্রচার করেছেন তাঁর জোটের হয়ে। প্রধান বিরোধী মহাজোটের হয়ে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী তেজস্বী যাদব, সিপিআই নেতা কানহাইয়া কুমার, কংগ্রেসের রাজ বব্বর নেমেছেন। প্রতিটি জনসভাতেই ভিড় দেখে চিন্তিত নির্বাচন কমিশন। ভোট শুরুর আগেই করোনা সংক্রমণ বাড়বে বলেই চিন্তা কমিশনের। জারি করা হয়েছে কিছু বিধি নিষেধ।

অভিযোগ, সেই বিধি অনবরত লঙ্ঘন করছেন প্রার্থী ও নেতারা। কোনও জনসভাতেই করোনা সংক্রান্ত নিয়ম পালনের বালাই নেই।

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I