নয়াদিল্লি: আশঙ্কা ছিলই। এবার সেটাই সত্যি হতে চলেছে। ভারতে ঢুকে পড়ল বিশাল পঙ্গপালের দল। প্রায় তিন কিলোমিটার দীর্ঘ এক বিশাল পঙ্গপালের দল ভারতে ঢুকে পড়ল। এর ফলে বিশাল ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে। বিশাল পরিমাণ ফসলের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা। দেশের ফসলের উপর হামলা চালাতে পারে পঙ্গপাল? গত কয়েকদিন ধরে লাগাতার আশঙ্কা প্রকাশ করছিলেন দেশের গবেষকরা।

সম্প্রতি পঞ্জাবের পাকিস্তান সীমান্ত দিয়ে পঙ্গপাল দেশে ঢুকে পড়তে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছিল। আর সেই আশঙ্কা সত্যি করে দেশে ঢুকে পড়ল পঙ্গপালের দল। একেবারে মারাত্মক সংখ্যায় পঙ্গপালের আবির্ভাব ঘটেছে।

উত্তরপ্রদেশের ঝাঁসি জেলা প্রশাসন দমকল বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছে রাসায়নিক নিয়ে প্রস্তুত থাকার জন্য। সেখানকার ক্ষেতে পঙ্গপাল ধেয়ে আসার কথা রয়েছে। এই পোকা শস্য ও সবজি ধ্বংস করে দিতে পারে দ্রুত। তাই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, রাসায়নিক স্প্রে করে পঙ্গপাল নিধনের জন্য প্রস্তুত থাকতে।

জেলাশাসক সম্প্রতি এই বিষয়ে একটি বৈঠকও করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, ‘‘গ্রামের সাধারণ মানুষকে বলা হয়েছে পঙ্গপালের গতিবিধি সম্পর্কে কন্ট্রোল রুমে খবর দিতে। যেখানে সবুজ ঘাস ও সবুজ ফসলের আধিক্য, পঙ্গপাল সেখানেই যায়। তাদের গতিবিধি সম্পর্কে বিস্তারিত জানলেই তা জানিয়ে দেওয়া হবে।”

এর আগে পঙ্গপালের হামলার খবর এসেছে যোধপুর থেকে। যোধপুরের শিরমান্ডি গ্রামে শনিবার পঙ্গপালের দল হামলা চালায়। এই আতঙ্কের পূর্বাভাস আগেই ছিল। পেঁয়াজ, জোয়ার, বাজরা ও অন্যান্য শষ্যের প্রচুর ক্ষতি হয়েছে বলে খবর। পঙ্গপালের দল হামলা চালাতে পারে, এই আতঙ্কের কথা প্রশাসনকে আগেই জানিয়েছিলেন চাষীরা। তবে সুরাহা হয়নি। শষ্যের ক্ষতি হওয়ার খবর এসেছে হিন্দুমালকোট এলাকার শ্রী গঙ্গানগর থেকেও।

আজ মধ্যপ্রদেশের একটি ভিডিও সামনে এনেছে সংবাদ সংস্থা। যেখানে দেখা যাচ্ছে কি ভয়ঙ্কর ভাবে পঙ্গপালের দল হানা চালাচ্ছে ফসলের উপর।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প