স্টাফ রিপোর্টার, পূর্ব মেদিনীপুর: বিস্তর অভিযোগ রয়েইছে৷ এবার তা হাতে কলমে খতিয়ে দেখতে সটান সরকারি বাসে হানা দিলেন পরিবহণ মন্ত্রী৷ পরীক্ষা করলেন যাত্রীদের টিকিট৷ শুনলেন যাত্রীদের অভিযোগ৷ মঙ্গলবার দুপুরে এমনই নজির বিহীন ঘটনার সাক্ষী থাকল পূর্ব মেদিনীপুরের নন্দকুমার-দিঘা রাজ্য সড়কের হেঁড়িয়া মোড়৷

এদিন ওই পথ ধরেই নিজের গাড়িতে করে যাচ্ছিলেন মন্ত্রী৷ আচমকায় হেঁড়িয়া মোড়ের কাছে সাউথ বেঙ্গল স্টেট ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশনের (SBSTC) একটি বাস থামিয়ে তাতে উটে পড়েন মন্ত্রী। শুরু করেন যাত্রীদের টিকিট পরীক্ষা৷ স্বয়ং পরিবহন মন্ত্রী এভাবে বাসে উটে পড়বেন টিকিট পরীক্ষা করতে, তা কল্পনা করেননি সরকারি বাসের চালক বা কনডাক্টর৷ চমকে যান যাত্রীরাও৷ তবে তাঁরা মন্ত্রীকে হাতের কাছে পেয়ে বাসের ‘ফিটনেস’ নিয়ে মন্ত্রীর কাছে একাধিক অভিযোগ জানান৷ মন্ত্রী তাঁদের অভিযোগগুলি খতিয়ে দেখে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের আস্বাস দেন৷

আচমকা বাসে হানা কেন? সরাসরি এবিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি পরিবহণ মন্ত্রী৷ তবে তাঁর এই অভিযানকে ঘিরে পরিবহণ কর্মীদের মধ্যে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে৷ অন্যদিকে মন্ত্রীর এেহন অভিযানে খুশি যাত্রীরা৷ তাঁদের মতে, পরিবহন দফতরের একাংশ কর্মী যাত্রীদের সঙ্গে যোগসাজশ করে নির্দিষ্ট ভাড়ার চেয়ে কম ভাড়া নেন৷ বিনিময়ে টিকিট দেন না৷ ফলে রাজ কোষাগারের টাকা ঢুকে ওই কর্মীদের পকেটে৷ যার জেরে লোকসানের মুখে পরিবহণ দফতর৷ এবার ওই লোকসানের রাশ টানতেই মন্ত্রীর এহেন অভিযান বলেই মনে করা হচ্ছে৷