স্টাফ রিপোর্টার, বহরমপুর: অধীর রঞ্জন চৌধুরী এই নওদা বিধানসভা কেন্দ্রে প্রার্থী নিয়ে হিন্দু মুসলমান খেলা খেলতে নেমে পড়েছে। তাই নওদায় শাহাবুদ্দিন ইসলামকে সংখ্যালঘু বলে প্রার্থী করেননি। এই ভাষাতেই কথা বললেন রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী তথা জেলা তৃণমূল কংগ্রেস পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারী।

নওদা বিধানসভা উপনির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী সাহিনা মমতাজ সমর্থনে নির্বাচন জনসভা অনুষ্ঠিত হয় নওদার আমতলা আমবাগানে। শুক্রবার এই সভায় উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী তথা জেলা তৃণমূল কংগ্রেস পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারী।

সেখানে তিনি ভোটারদের উদ্দেশ্যে বলেন, আগামী ২০ মে নির্বাচনের দিন কোন তৃণমূল কংগ্রেস নেতা যদি আপনাদেরকে অন্য জায়গায় ভোট দিতে বলেন তাহলে তার ছবি তুলে জানাতে নিজের মোবাইল নম্বর ভোটারদেরকে দেন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। এখানে এইভাবে আগে অনেক ভোট লুঠ হয়েছে তাই আর নয়।

এদিনের নির্বাচনী সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি সুব্রত সাহা, জেলা পরিষদের সভাধিপতি মোশারফ হোসেন, মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূল সভানেত্রী শাহানাজ বেগম, মুর্শিদাবাদ বিধানসভার বিধায়ক সাওনি সিংহ রায়, বহরমপুর মহকুমা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি অরিত মজুমদার সহ জেলা তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব।

এদিন সভায় নওদার প্রাক্তন বিধায়ক তথা মুর্শিদাবাদ লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী আবু তাহের খান বলেন, আজ সংবিধান বিপন্ন৷ আগামী দিন যদি বিজেপি আবার ক্ষমতায় আসে, তবে এই দেশ আবার ভাগ করে দেবে।