স্টাফ রিপোর্টার, কাঁথি: পরিজনদের অভিযোগ তিনি খুন হয়েছেন। ভোটের আগের রাতেই রাজনৈতিক খুনের ঘটনা নিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়েছে কাঁথির অযোধ্যাপুরে। যদিও এই ঘটনাকে খুন বলে মানতে নারাজ রাজ্যের মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। তার দাবি দুর্ঘটনায় মারা গিয়েছেন তৃণমূল নেতা সুধাকর মাইতি।

শনিবার আরতের দিকে রক্তাক্ত অবস্থায় কাঁথির অযোধ্যাপুর ও ফুলেশ্বরের মাঝে কালভার্ট-এর কাছ থেকে উদ্ধার সুধাকর মাইতিকে। কাঁথি মহকুমা হাসপাতালে আনা হলে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। সুধাকর মাইতি আগে বামফ্রন্টের সক্রিয় কর্মী থাকলেও বর্তমানে তিনি ছিলেন তৃণমূল কর্মী। পরিবারের দাবি তাঁকে কেউ অতর্কিতে পিছন থেকে হামলা করে খুন করেছে। পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

রবিবার সকালে নিজের ভোট দিতে গিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। সেখানে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন তিনি। কাঁথিতে তৃণমূল কর্মী খুনের ঘটনার বিষয়ে প্রশ্নের উত্তর তিনি জানান যে সুধাকর মাইতির মৃত্যু কোনও খুনের ঘটনা নয়। তিনি দুর্ঘটনায় মারা গিয়েছেন।

অন্যদিকে ভগবানপুরে বিজেপি কর্মীদের লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়৷ অভিযোগের নিশানায় তৃণমূল কংগ্রেস৷ যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে শাসক দল৷ এলাকা দখলকে কেন্দ্র করে বিবাদের সূত্রপাত৷ তাতে বাধা পেয়েই গুলি চালায় তৃণমূল কর্মীরা৷ এমনই অভিযোগ বিজেপির৷ জানা গিয়েছে, গুলিবিদ্ধ দুই বিজেপি কর্মীর নাম অনন্ত গুছাইত (৫০) এবং রণজিৎ মাইতি (২৮)৷

এই বিষয় নিয়েও তৃণমূলের দাপুটে নেতা তথা রাজ্যের মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর কাছে উত্তর জানতে চেয়েছিলেন সাংবাদিকেরা। এই প্রশ্নের জবাব জানার জন্য সাংবাদিকদের পশ্চিম মেদিনীপুরের সবং থানার সঙ্গে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেন শুভেন্দুবাবু। তাঁর কথায়, “ওই ঘটনার সঙ্গে আমাদের কোনও সম্পর্ক নেই।”

সপ্তদশ লোকসভার ষষ্ঠ দফার ভোট গ্রহণের দিনে শুভেন্দু অধিকারীর নিজের জেলায় চলছে ভোট গ্রহণ। কাঁথি এবং তমলুক এই দুই কেন্দ্রে তৃণমূলের প্রার্থী শুভেন্দুবাবুর বাবা এবং ভাই। দুই কেন্দ্রেই বিপুল ব্যবধানে তৃণমূল প্রার্থীরা জিতবেন বলে দাবি করেছেন তিনি। তার কথায়, “এখানে বিরোধী বলে কিছু নেই। মানুষ উৎসবের মেজাজে ভোট দিচ্ছেন।”

একই সঙ্গে তিনি আরও বলেছেন, “গ্রীষ্মের দাবদাহের আগে নির্বাচন কমিশনের উচিত নির্বাচন প্রক্রিয়া শেষ করে ফেলা। ভোট হচ্ছে উৎসব। মানুষ যাতে আনন্দের সঙ্গে এই উৎসবে সামিল হতে পারেন সেদিকে নজর দেওয়া উচিত।” এই বিষয়ে ভবিষ্যতে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে কথা বলবেন বলে জানিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী।