কলকাতা: আয়লা পরবর্তী পর্যায়ে সুন্দরবন এলাকার ভেঙে যাওয়া নদীবাঁধগুলি কেন্দ্রের টাকায় মেরামতের কথা ছিল। মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর অভিযোগ এনডিএ সরকার কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসার পর সেই প্রকল্পটাই তুলে দিয়েছে।

যার জেরেই সুন্দরবনের বহু এলাকায় নদীবাঁধ তৈরির কাজ থমকে যায় বলে অভিযোগ তোলেন শুভেন্দু। কাজের চেয়ে বেশি ভাষণ দেয় কেন্দ্র, এমনই ভাষায় নরেন্দ্র মোদীর সরকারকে কটাকত্ষ করেছেন পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী।

ঘূর্ণিঝড় আমফান বিধ্বস্ত এলাকা পরিদর্শনে যান মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার বাসিন্দাদের সঙ্গেও কথা বলেন মন্ত্রী। পরে কেন্দ্রকে দুষে তাঁর অভিযোগ, ‘আয়লা পরবর্তী সময়ে সুন্দরবনের নদীবাঁধগুলি কংক্রিটের করে দেওয়ার কথা ছিল। কিছু জায়গায় সেই কাজ হলেও অধিকাংশ জায়গাতেই কংক্রিটের নদীবাঁধ করা যায়নি।’

কংক্রিটের নদীবাঁধ তৈরির ক্ষেত্রে টাকার সমস্যার বিষয়টি তুলে ধরে মন্ত্রী আরও বলেন, ‘কেন্দ্রে ইউপিএ সরকারের সময় ঠিক হয় ওই প্রকল্পে ৭৫ শতাংশ দেবে কেন্দ্র আর ২৫ শতাংশ রাজ্য দেবে।

বিজেপি সরকার এসেই কংক্রিটের নদীবাঁধ গড়া ইস্যুতে প্রকল্পে রদবদল করে। ঠিক হয় প্রকল্পের মোট খরচের অর্ধেক দেবে কেন্দ্র ও বাকি অর্ধেক দিতে রাজ্যকে।’ শুভেন্দু অধিকারীর দাবি রাজ্য সরকার কেন্দ্রের এই প্রস্তাবে রাজি হলেও পরে গোটা প্রকল্পটাই তুলে দেয় কেন্দ্র।

কাজ না করে ভাষণ দিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার, কটাক্ষের সুরে এমনই মন্তব্য মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর। আমফান বিধ্বস্ত দুই ২৪ পরগনার একাধিক এলাকা ঘুরে দেখেন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। রাজ্য সরকার স্থায়ীভাবে নদীবাঁধ তৈরির জন্য বিস্তারিত পরিকল্পনা স্থির করে ফেলেছে বলে জানান শুভেন্দু অধিকারী।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প