স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: আজ, সোমবার তৃণমূল কংগ্রেস প্রভাবিত রাজ্য সরকারি কর্মী সংগঠনের সঙ্গে বৈঠকে বসতে চলেছেন পরিবহণ ও সেচমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী।নতুন দায়িত্ব পাওয়ার পর এটাই তাঁর প্রথম বৈঠক৷ এদিন বিকেলে তৃণমূল ভবনে এই বৈঠক ডাকা হয়েছে৷ বৈঠকে থাকবেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও৷ বামফ্রন্ট সরকারের সময়ে সংগঠনের হয়ে যাঁরা লড়াই করেছিলেন, তাঁদের এই বৈঠকে সামনের সারিতে নিয়ে আসা হতে পারে বলে খবর৷

লোকসভা নির্বাচনের রেজাল্টের পরই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারি কর্মচারী ফেডারেশন দেখার দায়িত্ব দিয়েছেনশুভেন্দু অধিকারীকে। এতদিন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় দলের তরফে এই দায়িত্ব পালন করতেন। প্রথমে ঠিক ছিল, ৩ জুন ঠকটি হবে। কিন্তু ওই দিন নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী তৃণমূল বিধায়কদের বৈঠক ডাকায় ফেডারেশনের বৈঠক বাতিল হয়। সোমবার ফেডারেশনের বৈঠকে কোর কমিটির সদস্যদের ডাকা হয়েছে।

রাজ্য সরকারি কর্মীদের ডিএ বকেয়া থাকা ও ষষ্ঠ বেতন কমিশনের সুপারিশ এখনও কার্যকর না হওয়ায় এবারের লোকসভা নির্বাচনে পোষ্টাল ব্যালটে প্রতিফলিত সরকারি কর্মচারীদের বিক্ষোভের আগুন৷ ইতিমধ্যেই বিজেপি সমর্থিত সরকারি কর্মচারী পরিষদের আহ্বায়ক দেবাশিস শীল বলেন, বিজেপিকে দুহাত তুলে সমর্থন করেছেন সরকারি কর্মচারীরা। বহু সরকারি কর্মচারী পরিষদের ছাতার তলায় আসছেন। পরিষদকে এবার সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনে অগ্রণী ভূমিকা নিতে হবে। অবিলম্বে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তুলব।

তৃণমূলের কাছেও খবর আছে, তাদের সংগঠনের অনেকেই বিজেপির দিকে পা বাড়িয়ে রয়েছে৷ বিধানসভা নির্বাচনের আগে সংগঠনের ভাঙন রুখতে মরিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তাই দক্ষ সংগঠক শুভেন্দুর উপর ভরসা করেছেন তিনি৷ জানা গিয়েছে, এখন কমিটিতে ১৪ জন সদস্য আছেন। কয়েক মাস আগে সংগঠন ও দল বিরোধী কাজ করার জন্য কোর কমিটির এক প্রভাবশালী সদস্যকে সরিয়ে দেওয়া হয়। সূত্রের খবর, এই বৈঠকের পর ফেডারেশনে সংগঠনের শীর্ষপর্যায়ে কিছু রদবদল হবে।