মুম্বই: শুধু সৌন্দর্য নয়। ব্যক্তিত্বের জন্য অন্যতমা সুস্মিতা সেন। আত্মবিশ্বাস ও ব্যক্তিত্ব দেখে তার মত হতে চান এমন মহিলা হাতে গুনে শেষ করা যাবে না। নিজের মত করে জীবন যাপন করেন সুস্মিতা। তবে সম্পর্কে যাওয়ার আগে দুই সন্তানের সিঙ্গেল মাদার হিসেবেও সফল তিনি। বয়সে ১৫ বছরের ছোট প্রেমিকের সঙ্গে থাকেন বিশ্ব সুন্দরী। তবে জানেন কি প্রেমিক রহমান শলের সঙ্গে কিভাবে দেখা হয়েছিল সুস্মিতার?

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে প্রাক্তন বিশ্বসুন্দরী জানিয়েছেন, ইনস্টাগ্রাম এর মাধ্যমে রহমানের সঙ্গে আলাপ তার। ইনস্টাগ্রামে রহমান তাকে বেশ কয়েক বছর আগে মেসেজ পাঠিয়েছিলেন। কিন্তু সুস্মিতা তখন বুঝতে পারেননি ১৫ বছরের ছোট এক যুবক তার প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন। সুস্মিতার বয়স এখন ৪৫।

বয়সে এত ছোট একজনের সঙ্গে সম্পর্কে যাওয়ার বিষয়ে সাক্ষাৎকারে কথা বলেছেন সুস্মিতা। তিনি বলছেন, “১৫ বছরের ছোট হওয়া সত্বেও ও যে এত পরিণত এবং বিবর্তিত তা আমি জানতাম না। অগভীর জিনিসপত্র আমার ভালো লাগেনা। গভীরতা থাকতেই হবে। ওর সঙ্গে কাটানোর সময় খুব সুন্দর। ও আমি এবং আমার দুই সন্তান একটা টিমের মতো।”

সুস্মিতা আরো বলছেন, “আমি সেই রোম্যান্টিক মানুষদের মধ্যে পড়িনা যারা মনে করেন, আমার জীবন পরিপূর্ণ করতে একজন পুরুষের দরকার। আমি এভাবে কোনোদিন ভাবি নি। তার জন্য ভগবানের কাছে আমি কৃতজ্ঞ।”

সুস্মিতা র দুই সন্তানের নাম রেনি ও আলিশা। রেনি খুব শীঘ্রই অভিনয় জগতে পা রাখবেন। সুস্মিতা প্রায়ই তাদের পরিবারের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। সেখানে দেখা যায় সুস্মিতা, রহমান, রেনি ও আলিফা একসঙ্গে সব সময় কাটাচ্ছেন। তবে এখনই বিয়ের কথা ভাবছেন না সুস্মিতা সেন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।