নয়াদিল্লি: কখনও ‘মেহবুব মেরে’, কখনওবা ‘দিলবর দিলবর’, নাচে অভিনয়ে তিনি বারবারই অগণিত সিনেমাপ্রেমীদের মন জয় করেছেন৷ মিস ইউনিভার্সের মঞ্চ জয় থেকে ভক্তদের মন জয়, সিলভার স্ক্রিনে নিয়মিত দেখা না দিলেও আজও তাঁর জনপ্রিয়তা এতোটুকু কমেনি৷ বরং সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বেড়েছে একটু একটু করে৷ সেই হাসির পিছনেই যে দীর্ঘদিনের এক কষ্ট লুকিয়ে রয়েছে তা এতোদিন বুঝতে দেননি সুস্মিতা সেন৷ তবে এক ইন্টারভিউয়ের মাধ্যমে তা প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই সুস্মিতা ভক্তরাও যেন মুষড়ে পড়েছেন৷ জানা গিয়েছে, ২০১৪ সাল থেকেই এক কঠিন অসুখে ভুগছেন অভিনেত্রী৷

সুস্মিতার ইনস্টাগ্রাম থেকে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম অনেকের কাছেই বিষয়টি কিছুটা স্পষ্ট৷ জানা যাচ্ছে, এক ইন্টারভিউয়ে সুস্মিতা জানান, তিনি মারণ রোগে ভুগছেন৷ ২০১৪ সালে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন৷ তাঁকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়৷ সেখানে চিকিৎসকেরা জানান, অভিনেত্রীর অ্যাড্রেনাল গ্ল্যান্ডসে একটি গুরুত্বপূর্ণ হরমোন তৈরি হওয়া বন্ধ হয়ে গিয়েছে, যার নাম cortisol. ফলে এই অ্যাড্রেনাল ক্রাইসিসের কারণে অভিনেত্রীর বহু অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ বিকল হয়ে যেতে পারে৷

সুস্মিতা ইনস্টাগ্রামে জানান, ‘আমি খুবই অসুস্থ ছিলাম, আমার চুল ঝরে যাচ্ছিল৷ …এরকম অবস্থায় আমার মৃত্যু হলে কেউ তো আমাকে চিনবেই না৷ তাই একদিন রাতে আমি আমার ইনস্টাগ্রাম পেজটি ওপেন করি৷’

২০১৬ সালে কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিলেন সুস্মিতা৷ আবারও তাঁকে হাসপাতালে ভরতি হতে হয়৷ ধীরে ধীরে চিকিৎসায় সুদিন দেখতে পান তিনি৷ এবং তাঁর শরীরে আবার সেই প্রয়োজনীয় হরমোন তৈরি হওয়া শুরু হয়৷

প্রসঙ্গত, বর্তমানে সুস্মিতা মডেল রোহমান শলকে ডেট করছেন এবং তাঁর সঙ্গে ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো সুপারহিট৷