মুম্বই: সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু হয়েছে তিন সপ্তাহ হয়ে গেল। পুলিশ জানিয়েছে অভিনেতা আত্মঘাতী হয়েছেন। যদিও সুশান্তের ভক্তরা তা মানতে নারাজ। তাদের দাবি সুশান্তের মতন গুণী একজন অভিনেতা আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে পারেন না। অনেকেই নানারকম ষড়যন্ত্রের কথা তুলে ধরছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তৈরি হয়েছে জাস্টিস ফর সুশান্ত সিং রাজপুত নামে নানা ফেসবুক গ্রুপ। সিবিআই তদন্তের দাবিতে অনেকেই পথে নামছেন। আবার অনেকে এই ঘটনার পিছনে অন্য কোনও রহস্য আছে কিনা তা খতিয়ে দেখার জন্য প্রাণপণ চেষ্টা করছে। নিজেদের দায়িত্বে এক প্রকার তদন্ত করছেন বলা যায়। আর তার জেরে এবার ভোগান্তির শিকার হলেন মধ্যপ্রদেশের এক তরুণ।

মধ্যপ্রদেশের সেই তরুণ পুলিশকে জানিয়েছে সুশান্ত সিং রাজপুতের অনুরাগীরা তাঁকে ফোন করেই চলেছেন। ঘটনার পর থেকে তাঁর কাছে অনবরত ফোন আসছে অভিনেতার অনুরাগীদের থেকে। কিন্তু কেন?

২০ বছর বয়সী এই তরুণ ইন্দোরে শ্রমিকের কাজ করেন। সাইবার সেল বিষয়টি তদন্ত করে জানতে পেরেছে যে সুশান্তের প্রাক্তন প্রেমিকা তথা অভিনেত্রী অঙ্কিতা লোখান্ডের নামে একটি ফেক ফেসবুক পেজ রয়েছে। আর সেখানেই অঙ্কিতার ফোন নম্বর হিসেবে দেওয়া রয়েছে এই ইন্দোরের তরুণের নম্বর। আর তার জন্যই একের পর এক সুশান্তের অনুরাগীদের থেকে ফোন পাচ্ছেন সেই তরুণ।

পুলিশ আধিকারিক জিতেন্দ্র সিং বলছেন, “সুশান্তের মৃত্যুর পরে এই শ্রমিকের কাছে প্রচুর ফোন আসছে। কেউ কেউ ফোন করে বুঝতে পারছেন যে এটি রং নাম্বার এবং ফোন কেটে দিচ্ছেন। কিন্তু অনেকেই আবার সুশান্তের মৃত্যুর জেরে তৈরি হওয়া ক্ষোভ উগরে দিচ্ছেন ফোন করে।”

তিনি জানিয়েছেন অঙ্কিতার নামে তৈরি হওয়া এই ফেক ফেসবুক পেজটিতে ফলোয়ারের সংখ্যা ৪০ হাজারের বেশি। তাঁর কথায়, ‘এই পেজটি কে তৈরি করেছে সেই বিষয়ে আরও জানতে পুলিশ এই পেজের অপারেটরের কাছে মেসেঞ্জারে একটি মেসেজ পাঠিয়েছে। কিন্তু এখনো পর্যন্ত কোনো উত্তর আসেনি। পুলিশ এই পেজের ক্রিয়েটরকে খুঁজে বার করার চেষ্টা করছে।”

প্রসঙ্গত, ১৪ জুন বান্দ্রার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয় সুশান্ত সিং রাজপুত এর ঝুলন্ত দেহ। পুলিশ প্রাথমিক তদন্ত থেকে জানাচ্ছে তিনি আত্মঘাতী হয়েছেন। বহুদিন ধরে অবসাদে ভুগছিলেন তিনি। যদিও একের পর এক নানা রকমের তথ্য উঠে আসার ফলে সুশান্তের অনুরাগীরা মানতে নারাজ যে তিনি আত্মহত্যা করেছিলেন। অনেকেই মনে করছেন আত্মহত্যা করলেও তার পিছনে রয়েছে বড় রহস্য। তাই ঘটনাটির বিষয়ে তদন্ত করছে মুম্বই পুলিশ। এখনো পর্যন্ত ২৯ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে মুম্বই পুলিশ।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ