পুরুলিয়া: অস্ত্র ছেড়ে সমাজের মূল স্রোতে ফিরতে চাওয়ার লক্ষ্যে আত্মসমর্পণ করলেন মাওবাদী স্কোয়াডের দুই সদস্য৷ হাজারী হেমব্রম ও রানি মুণ্ড ওরফে পুজা৷ হাজারীর বাড়ি পুরুলিয়ার বলরামপুরের মাহালীটায়৷ পুজার বাড়ি ঝাড়খণ্ডে গুড়াবাঁধায়৷ এই দুই মাওবাদীকে আত্মসমর্পনে রাজী করানো পুরুলিযা জেলা পুলিশের বড় সাফল্য হিসাবেই দেখা হচ্ছে৷

আজ সকালে পুরুলিয়া জেলা পুলিশ ও বেলগুমা পুলিশ লাইনে পুরুলিয়ার পুলিশ সুপার জয় বিশ্বাসের হাতে আগ্নেয়াস্ত্র তুলে দেন হাজারী ও রানি৷ হাজারী ওরফে বিজয় ঝাড়খন্ড-বিহারের প্রায় ১৫ টি মাওবাদী হামলার সঙ্গে যুক্ত৷ পুজাও প্রায় ৩ টি বড় মাওবাদী হামলার সঙ্গে যুক্ত৷ হাজারী ওরফে বিজয়ের মত এতবড় মাওবাদীর আত্মসমর্পণ পুরুলিয়া পুলিশের বড় সাফল্য৷ তবে, হাজারী ওরফে বিজয়ের সঙ্গে পুজার প্রেমই এই আত্মসমর্পণের কারণ বলে মনে করা হচ্ছে৷

ঝাড়খন্ড ও বিহার পুলিশ হাজারী ও পুজাকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে বিভিন্ন মাওবাদী হামলার তদন্ত চালাতে পারে বলে জানা গেছে৷ আজই এদের পুরুলিয়া জেলা আদালতে তোলা হয়েছে৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ