ইন্টারনেট থেকে প্রাপ্ত

সুরাট: বাবার পর ছেলে৷ ধর্ষণে দোষী সাব্যস্ত হলেন স্বঘোষিত গডম্যান আসারাম বাপুর ছেলে নারায়ণ সাই৷ শুক্রবার সুরাটের সেশন আদালত নারায়ণকে দোষী সাব্যস্ত করল৷ আগামী ৩০ এপ্রিল রায় ঘোষণা হবে৷ আইনজ্ঞদের মতে, তাঁর যাবজ্জীবন কারাদন্ড হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল৷

২০১৩ সালের ডিসেম্বর মাসে হরিয়ানার কুরুক্ষেত্র থেকে ৪০ বছর বয়সী নারায়ণকে গ্রেফতার করে পুলিশ৷ তারপর থেকে সুরাট জেলে রয়েছে সে৷ প্রসঙ্গত, ওই বছর অক্টোবর মাসে আসারাম ও নারায়ণের বিরুদ্ধে দুই নাবালিকা ধর্ষণের অভিযোগ আনে৷ গুজরাতের সুরাটে আসারামের একটি আশ্রম আছে৷ সেই আশ্রমে থাকতে আসে দুই বোন৷ অভিযোগ, আশ্রমে থাকাকালীন আসারাম ও তাঁর ছেলে নারায়ণ তাদের বারবার ধর্ষণ করত৷

সুরাট থানায় নারায়ণের নামে ধর্ষণের অভিযোগ আনেন তাদের একজন৷ জানান, ২০০২ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত আশ্রমে থাকার সময় তাকে ধর্ষণ করে নারায়ণ৷ নির্যাতিতার বড় বোন আসারামের নামে ধর্ষণের অভিযোগ আনেন৷ জানান, ১৯৯৭ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত আসারামের আশ্রমে ছিলেন তিনি৷ সেই সময় বারবার তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করে আসারাম৷

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ২৫ এপ্রিল নিজের আশ্রমে এক নাবালিকা স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় আসারামকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয় যোধপুরের নিম্ন আদালত। ২০ বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে এই মামলায় আসারামের দুই সঙ্গী শিল্পী এবং শরদকে। পাঁচ অভিযুক্তের বাকি দু’জনকে অবশ্য বেকসুর খালাস করে দিয়েছে আদালত। রায় শুনে আদালতের মধ্যেই কেঁদে ফেলে আসারাম।

স্বঘোষিত গডম্যানদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ নতুন নয়৷ এর আগে রাম রহিমের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে৷ পরে তাকে দোষী সাব্যস্ত করে বিশেষ সিবিআই আদালত৷ এখন জেলেই বন্দি সে৷ তারপরেও বহু গডম্যানদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগের ঘটনা সামনে এসেছে৷