নয়াদিল্লি: চৌকিদার সংক্রান্ত মামলায় সনিয়া পুত্র রাহুল গান্ধীকে সতর্ক করল সুপ্রিম কোর্ট। সর্বোচ্চ আদালতের তরফে বৃহস্পতিবার জানানো হয়, রাহুল গান্ধীর মন্তব্য দুর্ভাগ্যজনক। পাশাপাশি এ বিষয়ে রাহুল গান্ধীর ক্ষমা প্রার্থনা মঞ্জুর করে আদালত।

প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে বিজেপি সাংসদ মীনাক্ষী লেখি ‘চৌকিদার চোর হ্যায়’ মন্তব্যের জেরে অবমাননার মামলা করেছিলেন। সেই মামলাই এদিন খারিজ করে দিল সুপ্রিম কোর্ট। রাহুল গান্ধী তাঁর করা মন্তব্যে ক্ষমা প্রার্থনা করে আদালতকে জানিয়েছিলেন, রাজনৈতিক উত্তাপে তিনি ওই মন্তব্য করেছিলেন। সুপ্রিম কোর্টের কাজে আঘাত করার কোনও অভিপ্রায় তাঁর ছিল না।

রাফাল দুর্নীতি নিয়ে বলতে গিয়ে প্রাক নির্বাচন পর্বে মোদীকে নিশানা করে চৌকিদার চোর বলেছিলেন রাহুল গান্ধী। সেই ইস্যুতে সরগরম হয়েছিল দেশের রাজনীতি। তার প্রেক্ষিতেই বিজেপি সাংসদ মীনাক্ষী লেখি আদালতে অবমাননা মামলা দায়ের করেছিলেন। সেই বিষয়েই আজ রায় দিল সুপ্রিম কোর্ট।

দেশের প্রধান বিচারালয়ের তরফে এদিন বলা হয়, রাহুল গান্ধী এদেশের একজন শীর্ষ স্থানীয় রাজনৈতিক নেতা। তাই ভবিষ্যতে তিনি যেন এধরনের মন্তব্য, বিশেষ করে সুপ্রিম কোর্টের মুখে কথা বসানোর আগে যেন সতর্ক থাকেন।

তবে শুধু রাহুল গান্ধীর মামলা না, আজ সুপ্রিম কোর্ট রায় দেয় রাফাল মামলা নিয়ে ও শবরমতী মামলা নিয়েও। রাফাল মামলা প্রসঙ্গে আদালত জানায়, রাফাল নিএ আর সিবিআই তদন্তের কোনও প্রয়োজন নেই। ঋতুমতী মহিলাদের প্রবেশাধিকার সংক্রান্ত মামলা সাত বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চে পাঠাল সুপ্রিম কোর্ট।