নয়াদিল্লি:  সুপ্রিম কোর্টে ফের ধাক্কা। একশো শতাংশ ভিভিপ্যাট গণনার আর্জি ফের খারিজ করে দিল সুপ্রিম কোর্ট। গত কয়েকদিন আগে কয়েকজন প্রযুক্তিবিদ এই বিষয়ে আদালতের কাছে আবেদন জানায়। আজ মঙ্গলবার এই সংক্রান্ত বিষয়ে আদালতে শুনানি হয়। শুনানি শেষে আদালত এই আবেদন খারিজ করে দেয়। উল্লেখ্য, ভোট মরশুমের মধ্যে এই একই দাবি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন বিরোধীরা। আদালত সেই আবেদন খারিজ করে দেয়। এদিনও ফের একই সংক্রান্ত মামলার শুনানির জন্যে উঠলে কার্যত কিছুটা বিরক্তই প্রকাশ করে সুপ্রিম কোর্ট।

‘টেক-ফর-অল’ এই নামে গত কয়েকদিন আগে একদল প্রযুক্তিবিদ সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানায়। আদালতের কাছে ইভিএম যে হ্যাক করা যায় সে বিষয়টি তুলে ধরে। তাই প্রত্যেকটি ইভিএম-র সঙ্গে ভিভিপ্যাটও গণনা করার দাবি জানান তাঁরা। কিন্তু বিচারপতি অরুণ মিশ্র এবং বিচারপতি এমআর শাহের অবকাশকালীন বেঞ্চ তাঁদের এই আবেদনে কোনও সারবত্তা নেই বলে দাবি করে। এমনকি ভর্তসনা সুরে সুপ্রিম কোর্ট জানায়, বারংবার এ ধরনের আবেদন এনে সময় নষ্ট করা হচ্ছে। ‘বিরক্তকর’ বলে ব্যাখ্যা করেন বিচারপতিরা।

প্রসঙ্গত, নির্বাচনের মধ্যেই ভিভিপ্যাট দেওয়ার দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে দ্বারস্থ হয়েছিলেন ২১টি বিরোধী দলের প্রতিনিধিরা। বিরোধীদের দাবির চ্যালেঞ্জ জানিয়ে কমিশনের তরফে জানানো হয়, ৫০ শতাংশ ভিভিপ্যাট নিযুক্ত করার মতো পরিকাঠামো নেই তাদের। পাশাপাশি, অত সংখ্যক ভিভিপ্যাটের গণনা হলে, সার্বিক ফল বেরতে আরও কয়েকদিন দেরি হবে বলে জানায় কমিশন। এর পর বিরোধীরা ৩০ শতাংশ ভিভিপ্যাটের আর্জি জানায়। সেই সময় আদালত প্রত্যেকটি বিধানসভায় পাঁচটি করে ভিভিপ্যাট রাখার নির্দেশ দেয়। এদিনও সেই পুরানো নির্দেশই বহাল রাখল দেশের শীর্ষ আদালত।