নয়াদিল্লি: আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি দিল্লিতে বিধানসভা ভোট। দিল্লির ভোটে মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের বিরুদ্ধে বিজেপি প্রার্থী করেছে সুনীল যাদবকে। একেবারে শেষ মুহূর্তে দিলীপের নামে সিলমোহর দিয়েছে বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব। যদিও সূত্রের খবর, প্রথমে হেভিওয়েট কেজরিওয়ালের বিরুদ্ধে প্রার্থী হতে রাজি হননি সুনীল। কিন্তু দলের শীর্ষ নেতাদের চাপে একপ্রকার বাধ্য হয়েই দলীয় নির্দেশ মানতে বাধ্য হন তরুণ আইনজীবী সুনীল যাদব।

অরবিন্দ কেজরিওয়ালের বিরুদ্ধে প্রার্থী হয়ে হেরে গেলে রাজনৈতিক কেরিয়ার শেষ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে সুনীলের। আর তাই অন্য কোনও কেন্দ্র থেকে প্রার্থী প্রার্থী হতে চেয়েছিলেন সুনীল। কিন্তু বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডাই সুনীলকে কেজরির বিরুদ্ধে ভোটে লড়াই করতে নির্দেশ দেন।

তবে কেজরির বিরুদ্ধে প্রার্থী হওয়ার পর বেশ প্রত্যয়ী তরুণ আইনজীবী সুনীল। সাংবাদমাধ্যমকে তিনি জানান, স্থানীয় বাসিন্দা বলেই কেজরিওয়ালের বিরুদ্ধে ওই আসনে তাঁকে প্রার্থী করেছে দল। এলাকার বাসিন্দারাও তাঁকে নিজেদেরই একজন বলে ভাবেন বলেও দাবি বিজেপির এই তরুণ নেতার।

বিধানসভা ভোট ঘিরে এই মুহূর্তে সরগরম রাজধানী। দিল্লির মসনদ দখলে মরিয়া গেরুয়া শিবির। আপ-এর বিরোধিতায় প্রচারের তীব্রতা আরও বাড়িয়েছে পদ্ম শিবির৷ গত পাঁচ বছরে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের শাসনে দিল্লির উন্নয়নের কাজ থমকে গিয়েছে বলে দাবি বিজেপির। ক্ষমতায় এলে ঢালাও উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়েচে গেরুয়া শিবির। উলটো দিকে আপ সরকারের বিরুদ্ধে একাধিক দুর্নীতিরও অভিযোগ তুলেছেন বিজেপি নেতারা৷

এদিকে, এই প্রথমবার দিল্লির নির্বাচনে আরজেডি-র সঙ্গে জোট করে লড়ছে কংগ্রেস। কংগ্রেসও জোটসঙ্গীকে সঙ্গে নিয়ে প্রচার আরও তীব্র করেছে। একদিকে বিজেপি বিরোধিতা এবং অন্যদিকে দিল্লি শাসনের আগের অভিজ্ঞতা নিয়েও প্রচারে শান দিচ্ছেন কংগ্রেস নেতারা।

৮ ফেব্রুয়ারি দিল্লিতে বিধানসভা ভোট৷ দিল্লির ৭০টি বিধানসভা কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হবে৷ আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি দিল্লি বিধানসভার ভোটের ফল ঘোষণা হবে।