রাশিফল বা ভাগ্য গণনা করলে আগামী দিন সম্পর্কে আগে থেকেই জানা যায়। ফলে যদি কোনো বিপদের আভাস থাকে তাহলে সাবধান হওয়া যায়। রবিবার সাধারণতঃ অফিস-কাছারি, স্কুল বন্ধ থাকে। কিন্তু এই দিন অনেকের কাজও থাকে অনেকরকম। তাই দেখুন কে দিনটি কাটাবেন সুখে আর কার ভাগ্যে আছে বিপদ।

মেষ : দিনটি ভালো কাটার সম্ভাবনা। ব‍্যবসায়ীরা আর্থিক লাভের মুখ দেখবেন। বিবাহিতদের জীবনসঙ্গীর সাথে ছোট ছোট বিষয় নিয়ে ঝগড়া হতে পারে। ছোট্ট খাটো ভুল ভ্রান্তি নিয়ে অবহেলা না করে সেগুলি নিয়ে সোজাভাবে কথা বলবেন। নতুন সম্পত্তি ক্রয় করার সুযোগ আসবে। গৃহে নতুন আসবাবপত্র আসতে পারে।

বৃষ : পরিবারে সুখ শান্তি আসবে। ব‍্যবসায় বিনিয়োগ করলে ভালো ফল পাবেন। দূরে কোথাও ভ্রমণ করতে পারেন। প্রেমিকার সঙ্গে সম্পর্ক ভালো হবে।

মিথুন : ব‍্যবসায়ীদের ক্ষেত্রে বিনোয়োগের ফল ভালো হবে না। চাকুরীজীবিদের কর্মক্ষেত্রে দিন ভালো কাটবে। সংসারে কোনো ঝামেলা হবে না।

কন্যা : বন্ধুর সঙ্গে সম্পর্ক ভালো হওয়ার সম্ভাবনা। আদালতে কোনো মামলা চললে ভালো ফল মিলবে জাতক-জাতিকাদের। বিয়ের যোগ্য ছেলে-মেয়েদের জন্যে ভালো খবর আসবে।

তুলা : সঙ্গীর সঙ্গে কোনো ঝামেলা হয়ে থাকলে আজ মিটে যাবে। শারীরিক রোগে অনেক অর্থ ব্যয় হওয়ার সম্ভাবনা। আগে থেকে ঠিক করা ভ্রমণের পরিকল্পনায় আসবে বাধা।

বৃশ্চিক : গৃহে কোনো ধার্মিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা শুভ। পরিবারের সাথে পুরোনো ঝামেলা মিটে যাবে। চাকুরী জীবিদের ক্ষেত্রে আসবে সমস্যা।

কুম্ভ : ব‍্যবসায়ীরা আর্থিক লেনদেনে ভালো ফল পাবেন। পারিবারিক ঝামেলা থাকলে তা মিটে যাবে।

মকর : প্রেমে বাধা দূর হবে। আর্থিক অবস্থা ভালো যাবে। প্রিয় কারুর থেকে উপহার পাবেন। পুরোনো জমি উদ্ধার হবে।

কর্কট : গুরুজনদের সঙ্গে মতবিরোধ হতে পারে। সামাজিক কোনো ক্ষেত্রে যশ লাভ হওয়ার সম্ভাবনা।
সিংহ : অপ্রিয় সত্যি কথা বলায় কারুর সঙ্গে ঝামেলা হতে পারে। পড়ুয়ারা পড়াশোনায় ভালো ফল পাবে। ব্যয় সংসারে বৃদ্ধি পাবে।

ধনু : নিজের বা অন্যের ছোট্ট ভুল উপেক্ষা করে রাগ নিয়ন্ত্রণ করুন। স্বাস্থ্য মোটামুটি ভালো থাকবে। ব‍্যবসায় উন্নতি হবে। গৃহে নতুন অতিথি আসতে পারে।

মীন : পারিবারিক শান্তি আসবে। স্বাস্থ্য ভালো কাটবে। গৃহে হঠাৎ করে অতিথি আসতে পারে। অনেক ক্ষেত্রে বাঁধা আসলেও এগোতে পারবেন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.