কলকাতা: পর্যটকদের জন্য সুখবর, ১৫ জুন থেকে মিলবে সুন্দরবন যাওয়ায় ছাড়পত্র৷ তবে সুন্দরবনে যেতে গেলে অবশ্যই পরতে হবে মাস্ক৷ মানতে হবে সুরক্ষাবিধি৷ এছাড়া ১০ বছরের কম বয়সী এবং ৬৫ বছরের বেশি বয়সীদের প্রবেশ নিষেধ৷ বাকিরা এবার ঘুরে আসতে পারেন সুন্দরবন৷ পর্যটকদের সুরক্ষায় নিয়মিত স্যানিটাইজ করতে হবে লঞ্চ ও বোট৷ করোনা আবহে বন্ধ ছিল সুন্দরবন৷ এবার ১৫ জুন থেকে সুন্দরবন যাওয়ায় ছাড়পত্র মিলবে৷ এমনই নির্দেশিকা জারি করল বন দফতর৷

১০ বছরের কম বয়সীদের সুন্দরবনে প্রবেশাধিকার নয়। ৬৫ বছরের বেশি বয়সীদেরও প্রবেশ নিষেধ। এছাড়া ২ সিলিন্ডার যুক্ত বোটে সর্বোচ্চ ১২ জনকে তোলা যাবে। ৪ সিলিন্ডার বোটে ১৮ জন, ৬ সিলিন্ডার বোটে ২৫ জন এবং ৬ সিলিন্ডার লঞ্চে ৩৫ জন যাত্রী তোলা যাবে। বোটে ওঠার আগে যাত্রীদের প্রত্যেকের তাপমাত্রা দেখা হবে।

সুন্দরবনে পর্যটকদের ‘প্রবেশ নিষেধ’ ঘোষণা করেছিল বন দফতর। সুন্দরবনের অন্যতম পর্যটন কেন্দ্র বলে চিহ্নিত গোসাবার পাখিরালয়, দয়াপুর, বালি, সোনাগাঁ, রাঙাবেলিয়া প্রভৃতি এলাকার হোটেল ও লজগুলিতে থেকেই কড়া নজরদারি শুরু করেছিলেন গোসাবা ব্লকের স্বাস্থ্যকর্মীরা।

গোসাবার বিএমওএইচ প্রশান্ত মণ্ডলের নেতৃত্বে স্বাস্থ্যকর্মীরা বাড়ি, বাজার এলাকা, খেয়াঘাট এবং হোটেল ও লজগুলিতে গিয়ে কোভিড-১৯ সম্পর্কে সচেতন করার পাশাপাশি অযথা আতঙ্কিত না-হওয়ার পরামর্শও দিয়েছিলেন। সেইসঙ্গে পর্যটকদের শারীরিক অবস্থার খোঁজও নিতেন নিয়মিত। কারও জ্বর, সর্দি, কাশি হলে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার বন্দোবস্ত হচ্ছে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ