কলকাতা: পেট্রোল-ডিজেলের দাম-বৃদ্ধি নিযে কেন্দ্রের পাশাপাশি এবার রাজ্যের শাসকদল তৃণমূলকেও কড়া ভাষায় আক্রমণ শানালেন বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী। পেট্রোপণ্যের দাম-বৃদ্ধি নিয়ে তৃণমূল সরকার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সরব হচ্ছে না বলেও অভিযোগ সুজনের। এমনকী সাধারণ মানুষকে বিপাকে ফেলে কেন্দ্র-রাজ্য উভয়েই ‘ফায়দা’ লুঠছে বলে অভিযোগ এই বাম নেতার।

লাগাতার দাম বেড়ে চলেছে পেট্রোল-ডিজেলের। আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম নামলেও দেশের বাজারে পেট্রোল-ডিজেলের দাম বেড়েই চলেছে। তেলের দাম বৃদ্ধি নিয়ে বামেরা লাগাতার আন্দোলন চালাচ্ছে।

টুইটে সুজন চক্রবর্তী লেখেন, ‘ডিজেল পেট্রোলের দাম বাড়ছে রকেট গতিতে। টানা ২০ দিন দাম বাড়ল। সর্বকালীন রেকর্ড।’ কেন্দ্র তেলের দামে লাগাম না পরালেও রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল এব্যাপারে ‘স্পিক টু-নট’ বলে দাবি সুজনের।

রাজ্যের শাসকদল তৃণমূলকে বিঁধে সুজন চক্রবর্তীর টুইটে তোপ, ‘টানা ২০ দিন দাম বাড়ল। তৃণমুলের মুখে কোনও শব্দ নেই। প্রতিবাদ নেই। কেন?’ তেলের লাগামহীন দাম বাড়িয়ে কেন্দ্র আমজনতার টাকা লুঠ করছে বলে তোপ দেগেছেন সুজন।

এই প্রসঙ্গে রাজ্য সরকারকেও বেনজির আক্রমণ করেছেন এই বাম নেতা। তৃণমূলকে কটাক্ষ করে সুজন টুইটে আরও লেখেন, ‘লুঠের ভাগ পাচ্ছে কেন্দ্র, রাজ্য দু’জনেই। লাভ দু’তরফেরই। অথচ জেরবার মানুষ বিপদে।’

পেট্রোল-ডিজেলের দাম-বৃদ্ধির প্রতিবাদে বামেরা লাগাতার আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। গত কয়েকদিনে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে বামদের পথে নেমে আন্দোলন করতে দেখা গিয়েছে। টুইটে সেই নজির টেনে সুজন লেখেন, ‘বামপন্থীরাই লড়াইয়ে। মানুষের ভরসায়।’

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ