কলকাতাঃ গত বিধানসভা নির্বাচনের আগে সামনে এসেছিল নারদা-কাণ্ড। একের পর এক নেতার-মন্ত্রীর হাতে টাকা তুলে দেওয়ার ভিডিও ফাঁস হয়েছিল সংবাদমাধ্যমে। এবার আরও একটা বিধানসভা নির্বাচন। করোনা পরিস্থিতির মধ্যে হলেও ক্রমশ সরগরম হচ্ছে বাংলার রাজনীতি।

এবার বোমা ফাটালেন সারদা কেলেঙ্কারির নায়ক সুদীপ্ত সেন। একুশের আগে সুদীপ্ত বোমা ফাটালেন চিঠি লিখে। কয়েকদিন আগেই সারদা চিটফান্ডকাণ্ডের তদন্তে সিবিআইয়ের হাতে এসেছিল একটি অডিও ক্লিপ। ওই অডিওক্লিপে একাধিক ব্যক্তির কণ্ঠস্বর শুনতে পাওয়া যায়। এবার লিখলেন চিঠি।

চিঠিতে তিনি লিখেছেন, মুকুল রায়, শুভেন্দু অধিকারী থেকে শুরু করে অধীর চৌধুরী, বিমান বসু ও সুজন চক্রবর্তীর নাম। প্রধানমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রীকে লেখা সেই চিঠিতে তিনি লিখছেন, মুকুল রায়, শুভেন্দু অধিকারী, অধীর চৌধুরী, বিমান বসু ও সুজন চক্রবর্তীকে তিনি প্রচুর টাকা দিয়েছেন।

কাকে কত টাকা দিয়েছেন তাও তিনি চিঠিতে সবিস্তারে উল্লেখ করেছেন বলে জানা গিয়েছে। এই চিঠি প্রকাশ্যে আসার পর রাজনৈতিক মহলে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে।

এক নজরে সেই চিঠি পড়ে নিন-

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.