স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: পাশ ফেল পুনরায় চালুর দাবিতে আগামী ৩০ জানুয়ারি কলকাতায় মহা মিছিলের ডাক দেওয়া হয়েছে। তার আগে এই একই দাবিতে জলপাইগুড়ি কমিউনিস্ট পার্টি এসইউসিআই শহরে মিছিল করল৷ মিছিলটি শহরের কদমতলা থেকে শুরু করে ডিবিসি রোড় থানা মোড় হয়ে ফের কদমতলায় শেষ হয়।

আগামী দিনে আন্দোলনকে শক্তিশালী করতে শহরে জেলা কমিটি উদ্যোগে এই মিছিলের আয়োজন করা হয়৷ এসইউসিআই নেতা হরিভক্ত সর্দার বলেন, পাশ ফেল চালুর দাবি সহ নারী নির্যাতন ও অস্বাভাবিক মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। প্রায় ৩০০ জনের বেশি লোক এই মিছিলে পা মেলান৷

এসইউসিআই-এর দাবি, অবিলম্বে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারকে প্রথম শ্রেণি থেকে পাশ-ফেল প্রথা চালু করতে হবে৷ এই দাবিতে কয়েক’শো এসইউসিআই সদস্য এই মিছিলে যোগদান করেন৷ গত বছর লোকসভার বাদল অধিবেশনের প্রথম দিনেই পাশ হয়ে গিয়েছিল শিক্ষার অধিকার আইনের সংশোধনী বিল৷ এই বিলে পঞ্চম ও অষ্টম শ্রেণিতে ‘নো ডিটেনশন’ প্রত্যাহার করে ফিরিয়ে আনা হয়েছিল পাশ-ফেল প্রথা৷ কিন্তু, শুধু পঞ্চম ও অষ্টম শ্রেণি নয়, পাশ-ফেল প্রথা প্রথম শ্রেণি থেকেই চালু করতে হবে৷ এই দাবিতে সেই সময় কমিউনিস্ট পার্টি এসইউসিআই-এর সদস্যরা বিক্ষোভ করেছিল৷

দেশ জুড়ে পাশ ফেল রাখা ঠিক না বেঠিক, তা নিয়ে চর্চা তুঙ্গে৷ অনেকে মনে করেন প্রথম শ্রেণি থেকেই পাশ ফেল প্রথা ফিরিয়ে আনা উচিত৷ আবার কারও মতে পঞ্চম শ্রেণি থেকে পাশ ফেল ব্যবস্থা চালু রাখা উচিত৷ শিশুর শিক্ষার অধিকার আইন মোতাবেক বর্তমানে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত পাশ ফেল ব্যবস্থা নেই৷ তাতে শিক্ষার মানোন্নয়ন কমে যাচ্ছে বলে ধারণা অনেকের৷