কলকাতা:  কাটমানি সহ একাধিক ইস্যুতে রাজ্য সরকারের ভূমিকা নিয়ে গোটা রাজ্যজুড়ে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে বিজেপি। আর এই বিজেপির আন্দোলনকে কটাক্ষ করতে গিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করে বসলেন রাজ্যের পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। তাঁর মন্তব্য, “খুচরো আন্দোলন না করে বড় আন্দোলন করুন, যাতে পুলিশকে গুলি চালাতে হয়, ২০টা লোক মরে।” তাঁর এই মন্তব্য ঘিরে তীব্র বিতর্ক তৈরি হয়েছে। রাজ্য সরকারের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী হয়েও কীভাবে এমন মন্তব্য করতে পারেন তা নিয়ে ইতিমধ্যে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন অনেকে।

বাংলা এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর মোতাবেক সুব্রত মুখোপাধ্যায় আরও বলেন, “এত খুচরো আন্দোলন না করে বড়ো আন্দোলন করুন। গঙ্গার ওপারে গিয়ে এই যে করছেন, তাতে আপনারা একটা জায়গা পর্যন্ত যাবেন। পুলিশ আপনাদের আটকাবে , ছবি হবে, আমরা দেখব। তাতে লাভ কী! এমন আন্দোলন করুন, যাতে বাধ্য হয়ে পুলিশকে গুলি চালাতে হয়। ২০ টা লোক মরে । খাদ্য আন্দোলন সরকার বদলে ছিল।” তাঁর এই মন্তব্যে রাজ্যজুড়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। তাঁর এই মন্তব্যকে হাতিয়ার করেই আগামীদিনে বৃহৎ আন্দোলনে নামারও ভাবনা চিন্তা রাজ্য সরকারের।

রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি এবং কাটমানি ইস্যুতে সরকারের বিরুদ্ধে রাজ্যজুড়ে আন্দোলনে নামার কর্মসূচি নিয়েছে বিজেপি। সেই মতো বৃহস্পতিবার নবান্নের সামনে হঠাতই বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন বিজেপির মহিলা মোর্চার সদস্যরা। বিজেপি এমন ঘটনা ঘটাতে পারে সেই আশঙ্কা নবান্নের বাইরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল। করা হয়েছিল ব্যারিকেডও। হঠাত করেই সেই ব্যারিকেড ভেঙে একেবারে নবান্নের সামনে চলে আসেন বিজেপির কর্মীরা। শুধু নবান্নেই, গোটা রাজ্যজুড়ে চলছে বিজেপির এই বিক্ষোভ সমাবেশ। আর তা নিয়ে কটাক্ষ করতে গিয়েই এহেন মন্তব্য করে বসেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়। এমনটাই বাংলায় প্রকাশিত খবর মোতাবেক বলা হয়েছে।