স্টাফ রিপোর্টার, পূর্ব বর্ধমান: ফের ঘর ওয়াপসি৷ লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে গেরুয়া শিবির মাথাচাড়া দিয়ে উঠতেই তৃণমূল কংগ্রেস থেকে বিধায়ক থেকে কাউন্সিল-কর্মী-সমর্থকেরা বিজেপিতে যোগ দিতে থাকেন৷ বিজেপি নেতা মুকুল রায় এবং অর্জুন সিংয়ের মতে এই যোগদানের পর্ব আরও বাড়বে৷ কিন্তু একদিকে যেমন তৃণমূল শিবির ছেড়ে বিজেপিতে যাচ্ছেন অনেকে, তেমনই আবার ঘর ওয়াপসিও হচ্ছে তাদের৷ বিজেপি ছেড়ে অনেকেই আবার ফিরে আসছেন তৃণমূলেই৷

শুক্রবার পূর্ব বর্ধমানের দক্ষিণ দামোদরের সগড়াই থেকে সেহারাবাজার পর্যন্ত ২১ জুলাইয়ের সমর্থনে জনসংযোগ পদযাত্রায় সামিল হয়ে কর্মীদের উজ্জীবিত করে গেলেন রাজ্যের পরিবহণ দফতরের মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। তিনি জানালেন, যাঁরা গিয়েছিল তাঁরা একের পর এক ফিরে আসছে তৃণমূলে। বাংলায় মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে নতুন করে জেগে উঠেছে তৃণমূল কংগ্রেস। পদযাত্রা শেষ হবার পর সংক্ষিপ্ত ভাষণে শুভেন্দুবাবু বিজেপির বিরুদ্ধে স্লোগান তোলেন।

এদিন বক্তব্য রাখতে গিয়ে রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের মন্ত্রী তথা জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি স্বপন দেবনাথ জানিয়েছেন, দক্ষিণ দামোদরের রায়না ও খণ্ডঘোষ বিধানসভায় জয়ী হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। তাই তৃণমূল কর্মীদের আশঙ্কিত হবার কোনও কারণ নেই।

উল্লেখ্য, এদিন সগড়াই মোড় থেকে পদযাত্রা শুরু হবার কিছুক্ষণের মধ্যেই ব্যাপক বৃষ্টি নামে। কার্যত বৃষ্টিকে উপেক্ষা করেই এদিন পদযাত্রায় সামিল হন কাতারে কাতারে তৃণমূল নেতা-কর্মীরা। হাজির ছিলেন জেলার বেশ কয়েকজন বিধায়ক, জেলা নেতৃত্ব ছাড়াও জেলা পরিষদের সভাধিপতি শম্পা ধাড়া, সহকারী সভাধিপতি দেবু টুডু সহ অন্যান্য জেলা পরিষদের সদস্যরাও।