স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা : চলছে ‘মিসিং’ পর্ব৷ কখনও এ ওকে মিস করে, তো কখনও ও একে৷ মিস করাটাই স্বাভাবিক৷ নতুন নতুন বিয়ে হয়েছে৷ কয়েক মাস পেরোতে না পেরোতেই রাজ ব্যস্ত শ্যুটিং নিয়ে৷ সেই জায়গায় শুভশ্রী তো তাঁকে মিস করবেনই৷ ইনস্টাগ্রামে নিজের এবং রাজের ক্যানডিড ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে লিখেছেন, “মিসড ইউ”৷

ছবি সৌজন্যে-ইনস্টাগ্রাম

প্রসঙ্গত, ছোটদের নিয়ে বড় বিষয় পর্দায় তুলে ধরতে চলেছেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তী। ছবির নাম ‘অ্যাডভেঞ্চারস অফ জোজো’৷ আজকাল প্রায় বিলুপ্তির পথে রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার। এদিকে দিন দিন বেড়ে চলেছে চোরা শিকারিদের উপদ্রব। আর এই জঙ্গলের চোরা শিকার এবার রাজের ছবির মূল প্লট। সদ্য মুক্তি পেয়েছে ‘অ্যাডভেঞ্চারস অফ জোজো’-এর পোস্টার। যেখানে জোজোর ভূমিকায় দেখা যাবে অভিনেতা জয়জিৎ চট্টোপাধ্যায়ের ছেলে যশোজিৎকে।

ছবি সৌজন্যে-ইনস্টাগ্রাম

চিত্রনাট্যের কেন্দ্রীয় চরিত্রে জোজো। সে ক্লাস থ্রি-এর ছাত্র। তার জঙ্গল খুব পছন্দের। পশু-পাখি খুব ভালবাসে সে। তাই স্কুল ছুটিতে সে বোড়পাহাড়ি যায় কাকার বাড়িতে বেড়াতে। সেখানে গিয়ে মাহুতের ছেলে শিবুর সঙ্গে বন্ধুত্ব পাতায় জোজো। তার সঙ্গেই চলতে থাকে তার জঙ্গল সফর। এই দু’বন্ধুর জঙ্গল সফরে একদিন জঙ্গলে ঘুরতে ঘুরতে একটা মৃত বাঘ দেখতে পায় দু’জনে। বুঝতে পারে কিছু একটা গণ্ডগোল রয়েছে।

ছবি সৌজন্যে-ইনস্টাগ্রাম

এখান থেকেই বাঁক নেয় ছবির চিত্রনাট্য! একে একে নানা বিপদের মুখে পড়ে জোজো। কিন্তু শেষমেশ জোজো কি পারবে, সব বিপদ কাটিয়ে, চোরাশিকারিদের জালকে পুলিশের হাতে ধরিয়ে দিতে? এই নিয়ের তৈরি ‘অ্যাডভেঞ্চারস অফ জোজো’। যা মু্ক্তি পেতে চলেছে এবার বড়দিনের মরশুমে৷

অন্যদিকে স্ত্রীয়ের মিউজিক ভিডিও নিয়ে বেজায় ব্যস্ত ছিলেন রাজ৷ পুজোর জন্য একখানা গান। তাতে তারকার ঘটা। গ্ল্যামারের ঝলকানি। খেলোয়াড় থেকে গায়ক, বাদ পড়েনি কিছুই। এ বছর টিএমটি বারের পুজোর মিউজিক অ্যালবামে রয়েছে চমকের পর চমক। একদিকে একই গানে থাকছেন শুভশ্রী, মিমি, বনি, নুসরত। সঙ্গে থাকছেন বাংলার দাদা সৌরভ গঙ্গোপাধ্য়ায়। এবং প্রথমবার গানে গানে ভিডিওয়ে থাকবেন জিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। এক কথায় ফুল অব এন্টারটেনমেন্ট। এই পুজো মিউজিক অ্যালবাম ‘জয় জয় দুর্গা মা’-এর মুক্তির অপেক্ষায় দর্শকমহল৷

View this post on Instagram

Missed you #mammalove @rajchoco

A post shared by Subhashree Ganguly (@subhashreeganguly_real) on

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।