কলকাতা: বছর দুই আগের কথা, তাঁদের বিয়ের ছবিতে ছয়লাপ ছিল সোশ্যাল মিডিয়া। লাল টুকটুকে বেনারসীতে শুভশ্রী আর বরের সাজে দেবকে দেখে, সবাই এককথায় বলেছিলেন জাস্ট অসাধারণ। এই জুটির ধারে কাছে কেউ নেই। কিন্তু বছর দুই ঘুরতে না ঘুরতে দর্শকের চোখ ছানাবড়া। হানিমুনে গিয়েছেন নায়িকা। কিন্তু দেব নয়, সঙ্গে সোহম। পর্দায় যে জুটির বিয়ে দিয়েছিলেন কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়, সেই জুটিকে হানিমুনে পাঠালেন পরিচালক পিবি চাকি। সম্প্রতি সোহম ও শুভশ্রীর রোম্যান্সেই বসন্ত চলছে সাইবার দুনিয়ায়।

পড়ুন: ‘বাহুবলী’কে টেক্কা দিতে আসছে ‘মহাবলী’

ভ্যালেন্টাইনস ডে-তেই মুক্তি পেতে চলেছে সোহম-শুভশ্রীর রোমান্টিক ছবি ‘হানিমুন‘। সমরেশ বসুর গল্পের ওপর ভিত্তি করেই তৈরি এই ছবির পরিচালনা করছেন প্রেমেন্দু বিকাশ চাকি। সিনেমায় সদ্য বিবাহিত বিপিন-জয়ন্তীর চরিত্রেই দেখা যাবে সোহম-শুভশ্রীকে। বিয়ের পর বিপিন তার বউকে নিয়ে হানিমুন করতে যায়। সেখানে গিয়ে বিপাকে পড়ে তাঁরা। কারণ সব হোটেলের রুম বুকড্। এরপরে সরকারি সার্কিট হাউসের কেয়ারটেকারকে ঘুষ দিয়ে তাঁরা একটা ঘরের ব্যবস্থা করবেন। কিন্তু নিজের নাম লুকিয়ে ঘরটি বুক করেন প্রাণেশ নামে৷ এরপর তাঁদের সঙ্গে কী কী ঘটবে তাই নিয়েই এই ছবি।

পড়ুন: ন্যুডিটিতে হিট ৫ কন্যে

সোহম-শুভশ্রী ছাড়াও এই সিনেমায় দেখা যাবে জনপ্রিয় অভিনেতা রঞ্জিত মল্লিককে। দীর্ঘ ৫ বছর পর ফের পর্দায় ফিরছেন তিনি। এই ছবির প্রযোজনা করছে গ্রিন টাচ এন্টারটেইনমেন্ট। ছবির সঙ্গীত পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন ইন্দ্রদীপ দাশগুপ্ত। সিনেমা প্রসঙ্গে পরিচালক প্রেমেন্দু বিকাশ চাকি জানান, ‘সিনেমার গল্পটা বেশ মজাদার। এক কথায় কমেডি ঘরানার। সমরেশ বসুর ‘ছুটির ফাঁদে’ গল্প অবলম্বনে তৈরি সিনেমার কাহিনি। এতে বিপিন ও জয়ন্তীর নতুন বিয়ে হয়। কিন্তু কাজের চাপে তারা হনিমুনে যাওয়ার সময় পায় না। আর এ নিয়ে তাদের রোজ ঝগড়া হয়। অবশেষে তারা হানিমুনে যায়। সেখানে গিয়ে একজনের সঙ্গে তাঁদের দেখা হয়। আর এ নিয়ে সিনেমার গল্প’।