স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: এক ছাত্রকে মারধরের অভিযোগ উঠল শিক্ষকের বিরুদ্ধে৷ এই ঘটনায় উত্তাল হল বাঁকুড়ার ওন্দার রামসাগর হাইস্কুল। ঘটনায় গুরুতর আহত ওই ছাত্রকে বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভরতি করা হয়। অভিযুক্ত শিক্ষকের শাস্তির দাবিতে সরব হল ছাত্র ছাত্রীরা।

ছাত্র ছাত্রীদের অভিযোগ, রামসাগর হাই স্কুলের শিক্ষকরা নিজেদের মধ্যে ঝগড়া শুরু করে। এই ঘটনার পর ছাত্র ছাত্রীরা ক্লাস করতে রাজি হয়নি। পরে শিক্ষকরা ছাত্রদের নিয়ে আলোচনায় বসার সিদ্ধান্ত নেন। ওই আলোচনার শুরুর আগেই ইংরেজি বিষয়ের এক শিক্ষক শৌভিক পাল সহ আর এক ছাত্রকে মারধোর করেন বলে অভিযোগ। পরে তার সহপাঠীরাই উদ্যোগ নিয়ে প্রহৃত ছাত্রকে বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভরতি করে। সেখানেই তার চিকিৎসা চলছে।

শৌভিক পাল নামে প্রহৃত ওই ছাত্র বলেন, বন্ধুদের সঙ্গে স্কুলেই ছিলাম। কিছু বুঝে ওঠার আগেই ওই শিক্ষক মারধর শুরু করেন। এর আগেও তিনি এই ধরণের কাণ্ড ঘটিয়েছেন বলে তার অভিযোগ। ওই ছাত্রের বন্ধু আশিস লোহারের অভিযোগ, শিক্ষকরা নিজেদের মধ্যেই ঝামেলা করেন। তারপর আমাদের মারধর করেছেন।

এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে তারা অভিযুক্ত শিক্ষকের শাস্তির দাবি করছেন৷ এই বিষয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাদের পাওয়া যায়নি। তাই স্কুল কর্তৃপক্ষ বা ওই শিক্ষকের কোন প্রতিক্রিয়া মেলেনি।