মেদিনীপুর: পশ্চিম মেদিনীপুরের জঙ্গলমহল এলাকায় ধর্মঘটের প্রভাব পড়ছে। সকাল থেকেই স্তব্ধ জেলার প্রত্যন্ত এলাকার জনজীবন। ধর্মঘটে নামা বাম কর্মী সমর্থকদের দাবি, সুশান্ত ঘোষ আসবেন দ্রুত জেলায়।

এদিকে, তাঁর আসার খবরে কপালে ভাঁজ তৃণমূল ও বিজেপির। রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রীর বিরুদ্ধে কঙ্কাল-কাণ্ডে যুক্ত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত হয়নি। আদালতের ছাড়পত্র নিয়েই জঙ্গলমহলের সবকটি বিধানসভার দায়িত্ব নিচ্ছেন সুশান্ত ঘোষ।

দাপুটে সিপিআইএম নেতার বিরুদ্ধে নেতাই গণহত্যার অভিযোগও প্রমাণ হয়নি বলেই দাবি দলীয় নেতাদের। এদিকে, শীর্ষ আদালত থেকেও সুশান্ত ঘোষের ছাড়পত্র আসায় কর্মীরা উজ্জীবিত। তার প্রভাব দেখা যাচ্ছে ধর্মঘটে, এমনই দাবি সিপিআইএমের।

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার অন্যত্রও ধর্মঘটের প্রভাব পড়েছে। পথে নেমে ধর্মঘটের বিরোধিতা করছেন তৃণমূল কর্মীরা। তবে তাঁরা প্রতিটি ইস্যু সমর্থন করছেন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।