ফাইল ছবি

হুগলিঃ  কাকিমাকে নিয়ে চম্পট ভাইপোর। প্রায় তিন মাস পর কাকিমা এবং অভিযুক্ত ভাইপোকে উদ্ধার করল পুলিশ। হুগলির চণ্ডীতলা থানার কলাছড়া গ্রাম থেকে উদ্ধার করে কাকিমা পাপিয়া ঘোষ ও ভাইপোকে উদ্ধার করে কাটোয়া থানার পুলিশ। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। ইতিমধ্যে ধৃত দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। অপহরণ না অন্য কোনও কারণ রয়েছে এর পিছনে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে কাকাকেও। এমন ঘটনায় রীতিমত হতবাক পুলিশও।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, কাটোয়ার বাসিন্দা মহাদেব ঘোষ অভিযোগ করেন যে, গত ১৩ এপ্রিল ডাক্তার দেখানোর নামে বাড়ি থেকে বেরন তাঁর স্ত্রী পাপিয়া ঘোষ। অভিযোগ, পাপিয়াকে সঙ্গে নিয়ে বের হন ভাইপো। সকালের বাড়ি থেকে বের হয় দুজনে। কিন্তু সন্ধ্যা গড়িয়ে গেলেও বাড়ি ফেরে না দুজনে। এরপরেই খোঁজাখুঁজি শুরু হয়ে যায় সর্বত্র। আত্মীয়দের বাড়ি গিয়েছে কিনা তাও খোঁজখবর নেন পরিবারের লোকজন।

কিন্তু কোনও খবর না পাওয়াতে পুলিশের দ্বারস্থ হন মহাদেব ঘোষ। কাটোয়া থানায় ভাইপোর বিরুদ্ধে স্ত্রীকে অপহরণের অভিযোগ দায়ের করেন। মহাদেব ঘোষের অভিযোগে ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করে। প্রায় মাসখানেক কাটলেও কোনও খবর না পাওয়া যাওয়াতে ক্রমেই চিন্তা বাড়ে।

কিন্তু আজ শনিবার পাপিয়া ঘোষ ও ভাইপোকে উদ্ধার করে কাটোয়া থানার পুলিশ। চণ্ডীতলা থানার কলাছড়া গ্রাম থেকে উদ্ধার করা তাঁদের।