সিডনি: অভিশপ্ত অধ্যায় শেষ৷ নির্বাসন থেকে মুক্তি পেয়ে নতুন করে ক্রিকেটে ফিরছেন স্মিথ-ওয়ার্নার৷

গত বছর মার্চে কেপটাউন টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে খেলা চলাকালীন বলের আকৃতি পরিবর্তন করে দোষী সাবস্ত হয়েছিলেন অজিদের তাবড় দুই ব্যাটসম্যান৷ বল ট্যাম্পারিং কলঙ্কের জন্য আন্তর্জাতিক ও অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া ক্রিকেট থেকে এক বছরের নির্বাসনের মুখে পড়েন স্মিথ-ওয়ার্নার৷ সেই সঙ্গে স্মিথ-ওয়ার্নারের থেকে অজি দলের অধিনায়কত্ব ও সহঅধিনায়কত্বের দায়িত্ব কেড়ে নেওয়া হয়৷ বৃহস্পতিবার ২৮ মার্চ দুই ক্রিকেটারের শাস্তির এক বছরের মেয়াদ পূর্ণ হয়েছে৷ অর্থাৎ শুক্রবার থেকে নির্বাসন উঠছে স্মিথ-ওয়ার্নারের৷ ফলে এই দুই ক্রিকেটারের জাতীয় দলে ফেরায় আর কোনও বাধা রইল না৷ সামনেই বিশ্বকাপ, সেই লক্ষ্যেই নতুন করে হারানো গৌরব ফিরে পেতে চাইবেন দুই ক্রিকেটার৷

কাতকালীয় হলেও নির্বাসন থেকে মুক্তির দিনেই আইপিএলে মুখোমুখি স্মিথ-ওয়ার্নার৷ এদিন হায়দরাবাদের উপ্পলে মুখোমুখি লড়াইয়ে নামছে রাজস্থান রয়্যালস ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদ৷ সানরাইজার্সের হয়ে ইতিমধ্যেই নাইটদের বিরুদ্ধে রান পেয়েছেন ওয়ার্নার৷ ধৈর্য্য দেখাতে পারলে নাইটদের বিরুদ্ধে আইপিএল কামব্যাক ম্যাচে শতরান পাকা ছিল ওয়ার্নারের৷ ওয়ার্নার রান পেলেও স্মিথ এখনও নজর কাড়তে পারেননি৷ শাপমুক্তির দিনে দুই ক্রিকেটার নিজেদের কীভাবে মেলে ধরেন সেটাই এখন দেখার৷

অন্যদিকে স্মিথ-ওয়ার্নার ফিরলেও জাতীয় দলের সঙ্গে কতটা মানিয়ে নিতে পারবেন সেই প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে! নির্বাসন থেকে মুক্তির দিনেই আবার অভিযুক্ত ওয়ার্নারকে নিয়ে সতীর্থদের পুরনো ক্ষোভার এক কিস্সার কথা নতুন করে ফাঁস হল৷

অস্ট্রেলীয় সংবাদপত্র সিডনি মর্নিং হেরাল্ডে প্রকাশিত এক রিপোর্ট অনুয়ায়ী কেপটাউন টেস্টের ঘটনার পর বিতর্কিত ক্রিকেটারের সঙ্গে জাতীয় দলের ড্রেসিংরুম শেয়ার করতে অনীহা প্রকাশ করেছিলেন বেশ কিছু ক্রিকেটার৷ প্রাথমিক ভাবে কেপটাউনে স্যান্ডপেপার কেলেঙ্কারিতে স্মিথ ও ব্যানক্রফ্টের নাম জড়িয়েছিল৷ শিরীষ কাগজ দিয়ে বলের আকৃতি পরিবর্তনের চেষ্টা করেছিলেন ব্যানক্রফ্ট৷ আর পুরো ঘটনায় মদত দেন স্মিথ৷ পরে ঘটনায় মদত দেওয়ার অভিযোগে নাম জড়ায় ওয়ার্নারের৷ অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটে সবচেয়ে বড় কলঙ্কিত ঘটনার পর দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে জোবার্গ টেস্টে অভিযুক্ত ওয়ার্নারের সঙ্গে ড্রেসিংরুম শেয়ারে করতে প্রতিবাদ জানিয়েছিল দলের বিশেষ এক অংশ৷

কলঙ্কিত অধ্যায়ের আঁধার কাটিয়ে স্মিথ-ওয়ার্নারের জীবনে এখন অবশ্য নতুন সূর্যোদয়!!! নির্বাসন শেষে নতুন করে ক্রিকেটে ফিরে, দুই ব্যাটসম্যান কামব্যাকটা কীভাবে সামলান,সেটাই এখন দেখার৷