শ্রীনগর: কাশ্মীরে প্রথম বসল শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মূর্তি। শনিবার কাশ্মীরের কাঠুয়ায় বিজেপির অধুনালুপ্ত ‘ভারতীয় জনসঙ্ঘ’ (পরে বিজেপি)-র প্রতিষ্ঠাতা শ্যামাপ্রসাদের ১১৮ তম জন্মদিন উপলক্ষে এই মূর্তি বসানো হয়।

এদিন সেই মূর্তি উন্মোচন করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন বিজেপির জাতীয় সহ-সভাপতি অবিনাশ রাই খান্না, ন্যাশনাল সেক্রেটারি মহেশ গিরি, কাশ্মীরের বিজেপি প্রেসিডেন্ট রবিন্দর রাইনা ও বিধানসভার অধ্যক্ষ নির্মল সিং।

নির্মল সিং এদিনের অনুষ্ঠানে বলেন, ‘শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় কাশ্মীরে জন্মগ্রহণ করেননি ঠিকই। তবে এই রাজ্যের জন্য অনেক স্বার্থত্যাগ করেছিলেন। আর গোটা দেশের সঙ্গে সীমান্তের এই রাজ্যের এক অবিচ্ছেদ্য সম্পর্ক রয়েছে।’

উল্লেখ্য, কাশ্মীরের জন্য আর্টিকল ২৭০-এর তীব্র বিরোধিতা করেছিলেন শ্যামাপ্রসাদ। ১৯৫৩-তে কাশ্মীরে গ্রেফতার হওয়ার পর রহস্যজনকভাবে মৃত্যু হয় তাঁর। বিজেপির জাতীয় সহ-সভাপতি অবিনাশ রাই খান্নাবলেন, শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের আত্মত্যাগের কথা স্মরণ করেই এই মূর্তি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। তাঁর ‘এক বিধান, এক নিশান, এক প্রধান’ আন্দোলনের কথাও স্মরণ করান এই বিজেপি নেতা। তিনি আরও বলেন, ‘এই মুটফী উন্মচোন করে কেবল তাঁর অবদানের প্রতি সম্মান জানানো হল তাই নয়, তাঁর অসম্পূর্ণ কাজ এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার বার্তাও দেওয়া হল।

নির্মল সিং আরও বলেন, কীভাবে আন্দোলনের জন্য দেশের স্বার্থে বিলাসবহুল জীবন ত্যাগ করে এসেছিলেন শ্যামাপ্রসাদ। ন্যাশনাল সেক্রেটারি মহেশ গিরি বলেন, ‘যাঁরা দেশের জন্য স্বার্থত্যাগ করেন, তাঁদের দেশ সবসময় মনে রাখে।’

স্টেট জেনারেল সেক্রেটারি অশোক কাউল শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়কে ‘ম্যান অফ প্রিন্সিপ্যালস’ বলে উল্লেখ করেন।