কলকাতা: কেন্দ্রীয় জনবিরোধী নীতির প্রতিবাদের আগামী ৮ ও ৯ তারিখ ভারত বনধের ডাক দিয়েছে বাম ট্রেড ইউনিয়ানগুলি৷ বামেদেরে তরফে বনধকে সমর্থন জানানোর প্রস্তাব ছিল তৃণমূলের কাছে৷ সমর্থন তো দূরঅস্ত৷ বনধ মোকাবিলায় তৎপর রাজ্য সরকার৷ বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়ে দেওয়া হল নির্দিষ্ট কারণ ছাড়া ৭ থেকে ১০ই জানুয়ারি কোনও ছুটি নিতে পারবেন না রাজ্য সরকার ও রাজ্য সরকারের সাহায্যপ্রাপ্ত দফতরের কর্মীরা৷

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, বামেরা কেন্দ্রীয়নীতির প্রতিবাদে ৮ ও ৯ই জানুয়ারি বনধের ডাক দিয়েছে৷ কিন্তু রাজ্য সরাকারি কর্মীরা বনধের আগের ও পরের দিনও অনুপস্থিত থাকতে পারবেন না৷ অর্থাৎ ৭ ও ১০ তারিখ কোন মতেই কামাই করা যাবে না৷ এর অন্যথা হলেই শোকজের মুখে পড়তে হবে তাদের৷

তবে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, সংশ্লিষ্ট কর্মী অসুস্থতার কারণে হাসপাতালে ভরতি থাকলে, পারিবারিক কোনও দুর্ঘটনা ঘটলে বা শুক্রবার অর্থাৎ ৪ঠা জানুয়ারির আগে ছুটির অনুমতি নেওয়া থাকলে ওই দিনগুলোয় না এলেও সমস্যা হবে না৷

ফাইল ছবি

কর্মনাশা বনধের বিরোধী রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল৷ বিরোধীদের বনধ মোকাবিলায় এর আগেও কোমড় বেঁধে নেমেছিল প্রসাসন৷ এর আগে বাম ও বিজেপির বনধে বাংলা সচল রাখতে বাড়তি উদ্যোগ নেয় রাজ্য সরকার৷ নিরাপত্তা ব্যবস্থা যেমন বাড়তি ছিল, তেমনই বেশি পরিমানে সরকারি যানবাহন চালায় রাজ্য পরিবহণ দফতর৷ ফলে সেই অর্থে মানুষের অসুবিধে হয়নি৷ নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছতে তেমন বেগ পেতে হয়নি রাজ্যবাসীকে৷ অন্যান্য দিনের মতোই কাজ হয়েছে সরকারি দফতরে৷ খোলা ছিল স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়৷

ক্ষমতায় এসেই সরকারি দফতরে কর্মসংস্কৃতি ফেরানোয় জোর দিয়েছিলে মুখ্যমন্ত্রী৷ এখন আর কর্মদিবস নষ্ট হয়না এরাজ্যে৷ ক্ষতি হয় না সরকারি রাজস্বের৷ বনধের মোকাবিলা করে একদিকে সেই ধারা বজায় রাখা, অন্যদিকে বিরোধী বামেদের কড়া বার্তা দিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো৷ মত রাজনৈতিক মহলের৷