কলকাতা: ইস্যু সমর্থন করলেও বামেদের ডাকা বনধের মোকাবিলায় কড়া মনোভাবই দেখালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আগামীকাল বুধবার দেশজুড়ে ধর্মঘট। আর তার আগে সরকারি কর্মীদের উদ্দেশ্যে নির্দেশিকা জারি করেছে নবান্ন৷ বলা হয়েছে, কাজে যোগ না দিলে কাটা যাবে বেতন।

আগামীকাল বুধবার ৮ জানুয়ারি বনধের দিন রাজ্য সরকারের সব কর্মচারীকে অফিসে আসতে হবে। ইতিমধ্যে এই সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। প্রকাশিত ওই বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে সিএএ-এনআরসির বিরুদ্ধে বাম ও বিরোধীদের ডাকা বনধের দিন ছুটি পাবেন না সরকারি কর্মীরা।

শুধু তাই নয়, বনধের আগের দিন অর্থাৎ আজ মঙ্গলবার ও বনধের পরের দিন ৯ জানুয়ারিও আসতে হবে অফিসে। এই তিন দিন অফিসে না এলে শো-কজ করা হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। কাটা হবে বেতন ও ছুটি। এমনটাই জানানো হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে। তবে অফিস আসার বাধ্যবাধকতা থেকে বাইরে রাখা হয়েছে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি, কোনও নিকটাত্মীয়ের মৃত্যুজনিত কারণকে। এছাড়াও মাতৃত্বকালীন ছুটির ক্ষেত্রেও এই বিজ্ঞপ্তি কার্যকর হবে না।

রাজ্যে পালাবদলের পরেই ধর্মঘট রুখতে কড়া মমতা সরকার। একাধিকবার এই বিষয়ে সরকার তাঁদের কড়া মনোভাব দেখিয়েছে। বনধের মোকাবিলায় রাস্তায় নামানো হয় বাড়তি পুলিশ আধিকারিক এবং বাস। প্রত্যেক মোড়ে মোড়ে পুলিশ পিকেটিংয়ের ব্যবস্থা করা হয়।

সপ্তম পর্বের দশভূজা লুভা নাহিদ চৌধুরী।