কলকাতা : রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি (Corona Virus)  ক্রমেই ভয়াবহ হয়ে উঠছে। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ১৯ হাজার ১১৭ জন জন নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা সংক্রমণে প্রাণ হারিয়েছেন ১৪৭ জন। এর মধ্যে করোনা সংক্রমণে প্রথম স্থানে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা (North 24 Parganas) । সংক্রমণের নিরিখে কলকাতা (Kolkata) রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। এভাবে রাজ্যে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির ঘটনা রাজ্য প্রশাসনের চিন্তা বাড়াচ্ছে। এরই মধ্যে চলছে ভ্যাকসিন দেওয়া নিয়ে কেন্দ্রের গড়িমসি। রোজ কেন্দ্রের তরফে বদলানো হচ্ছে করোনা ভ্যাকসিন (Corona Vaccine) দেওয়ার নিয়ম। এরই মধ্যে চিকিৎসকরা বলছেন, করোনা থেকে রেহাই পেতে ভ্যাকসিন একমাত্র পথ।

রবিবার সন্ধ্যায় রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর (Health Department) জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ১৪৭ জন করোনা সংক্রমিতের মৃত্যু হয়েছে। এর সঙ্গে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা ১৯ হাজার ১১৭ তে পৌঁছেছে । গত কয়েক দিন ধরে সংক্রমণ বাড়তে থাকায় সংক্রমণ বৃদ্ধির মোট হার দাঁড়িয়েছে ৯.৯১ %। এই হার রাজ্যে এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ। উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় আবার ৪ হাজারের বেশি মানুষ নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। কলকাতায় দৈনিক আক্রান্ত প্রায় সাড়ে ৩ হাজারে পৌঁছেছে।

স্বাস্থ্য দফতরের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা সংক্রমণে প্রাণ হারিয়েছেন ১৪৭ জন। এর মধ্যে উত্তর ২৪ পরগনা এবং কলকাতার বাসিন্দা যথাক্রমে ৩৯ ও ৩৩ জন । এ ছাড়া, ওই সময়ের মধ্যে দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১৬ জন, জলপাইগুড়িতে ৮ জন , হাওড়া এবং উত্তর দিনাজপুরে ৭ জন করে করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। নদিয়া এবং মুর্শিদাবাদের ৬ জন করে করোনা সংক্রমিত মারা গিয়েছেন। অন্য দিকে, দার্জিলিং এবং বীরভূমে ৫ জন করে করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া, বাঁকুড়ায় ৪ জন , হুগলিতে ৩ জন , পুরুলিয়া, পশ্চিম মেদিনীপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর, এবং পশ্চিম বর্ধমানে ২ জন করে মানুষ করোনা সংক্রমণে মারা গিয়েছেন। সব মিলিয়ে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে ১৩ হাজার ২৮৪ জনের করোনা সংক্রমণে মৃত্যু হল বলে স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গেছে।

স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৯ হাজার ১১৭ জন। এর মধ্যে উত্তর ২৪ পরগনা দৈনিক আক্রান্ত ৪ হাজার ১১৬। কলকাতায় নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৩ হাজার ৪৫১ জন। অন্য দিকে, হুগলিতে ১ হাজার ৩৩৯ জন , হাওড়া ১ হাজার ২২২ জন , দক্ষিণ ২৪ পরগনাতে ১ হাজার ২৩৬ জন , নদিয়াতে ৯৯৪ জন , পশ্চিম মেদিনীপুরে ৯০৩ জন , পূর্ব মেদিনীপুরে ৮৪৯ জন , পশ্চিম বর্ধমানা ৬৯৬ জন , পূর্ব বর্ধমানা ৬০৫ জন , বাঁকুড়াতে ৫৪৪ জন , দার্জিলিং ৫০৯ জন করোনা সংক্রমণে আক্রান্ত হয়েছেন। জেলায় এই আক্রান্তের দৈনিক সংখ্যা রাজ্য প্রশাসনের উদ্বেগ বাড়াচ্ছে । সব মিলিয়ে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ১১ লক্ষ ৩৩ হাজার ৪৩০ জন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.