মুম্বই: স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া পরিকল্পনা করেছে আগামী ছয় মাসের মধ্যে তাদের ডিজিটাল ব্যাংকিং অ্যাপ ইয়োনো ( ইউ অনলি নিড ওয়ান)-এর ব্যবহারকারী গ্রাহকের সংখ্যা দ্বিগুণ করবে। মঙ্গলবার এমন কথাই জানিয়েছেন এসবিআই এর চেয়ারম্যান রজনীশ কুমার। বর্তমানে ইয়নো ডিজিটাল প্লাটফর্মে নথিভুক্ত গ্রাহকের সংখ্যা ২৪ মিলিয়ন। এই অ্যাপের মাধ্যমে সমস্ত রকম আর্থিক পরিষেবা এবং লাইফস্টাইল পণ্য ও পরিষেবা দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার স্টেট ব্যাংকের ৬৫ তম বার্ষিক সাধারণ সভায় শেয়ারহোল্ডারদের উদ্দেশে ভাষণ দিতে গিয়ে রজনীশ কুমার জানিয়েছেন, ডিজিটাল রূটে এসবিআই ইয়োনো-র রীতিমতো বৃদ্ধি লক্ষ্য করা গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাটি এখন লক্ষ্যমাত্রা রেখেছে এই অ্যাপ নথিভূক্ত গ্রাহক সংখ্যা দ্বিগুণ করার। ‌ এই অ্যাপ প্ল্যাটফর্ম আরো জোরদার করা হচ্ছে নতুন নতুন পণ্য গৃহঋণ, গাড়ির জন্য ঋণ এবং ব্যক্তিগত ঋণের ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে তিনি জানান।

এস বি আই প্রধান পাশাপাশি জানিয়েছেন, সব জায়গা থেকে কাজ (ওয়ার্ক ফ্রম এনি হোয়ার) করার পরিকাঠামো গড়ে তোলা হচ্ছে এবং আশা করা হচ্ছে এমন ব্যবস্থার ফলে প্রায় ১০০০ কোটি টাকা বাঁচবে।

এগিয়ে চলতে ব্যাংক নজর দিচ্ছে খরচ কমানো, করণী নিরসন এবং কর্মীদের নতুন ভাবে দক্ষ করার দিকে যাতে কর্মীদের উৎপাদনশীলতা বাড়ে।

যেহেতু করোনা অতি মহামারী এখনো বিরাজ করছে সেহেতু ২১ অর্থবর্ষ রীতিমত চ্যালেঞ্জিং বর্ষ অন্যান্য ব্যাংক ও আর্থিক সংস্থার মতোই এই ব্যাংকের বলে জানিয়েছেন রাজনীশ কুমার। পাশাপাশি তিনি উল্লেখ করেছেন এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার জন্য তারা প্রস্তুত হয়েছেন।

এই করোনা সংকট কালে এস বি আই নজর দিয়েছে স্পর্শ ছাড়া ডিজিটাল ব্যাংকিং চ্যানেল গ্রাহকদের পরিষেবা দেওয়ার জন্য। সেটা একেবারে অ্যাকাউন্ট খোলা থাকে ঋণের জন্য আবেদনের জন্য। এই ইয়োনো মারফত গ্রাহকরা স্টেট ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট খুলতে পারছেন ডিজিটালি, ফান্ড ট্রান্সফার করছেন, ঋণের আবেদন ও অনুমোদনের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা, স্থায়ী আমানতের থেকে ওভারড্রাইভ নেওয়া ইত্যাদি।

স্টেট ব্যাংকের ইয়োনো বেশ কিছু উদ্যোগ নিয়েছে যার মধ্যে রয়েছে ইয়োনো ক্যাশ, ইয়োনো কৃষি, পিএপিএল ইত্যাদি। ব্যাংক সম্প্রতি ইউকে এবং মরিসাসে চালু করেছে ইয়োনো গ্লোবাল অ্যাপ এবং পরিকল্পনা রয়েছে আরো নটি দেশে এই ব্যবস্থা চালু করার।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ