ফাইল ছবি

তমলুক: বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের মুখ্যমন্ত্রীত্বের সময়ে বামেদের মাথা-ব্যথার কারণ পূর্ব মেদিনীপুরের নন্দীগ্রামের কৃষক আন্দোলন। পরে গুলি চালনার ঘটনায় গত বাম সরকার বারবার সমালোচিত হয়েছে। সেই ধাক্কায়
তৃণমূল কংগ্রেসের উত্থান কেন্দ্রেে ফের শক্তি দেখাল সিপিআইএম।

কেন্দ্র সরকারের কৃষি বিলের বিরুদ্ধে নন্দীগ্রামে সড়ক অবরোধ করে প্রতিবাদে সামিল বাম কৃষক সংগঠন। আগেই দলের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, শুক্রবারের সড়ক অবরোধ ও কৃষক প্রতিরোধ রাজ্য সরকার ভাঙতে এলে প্রমাণ হবে তারা বিজেপির নীতির সমর্থন করল।

ফলে চাপে পড়ে শাসক দল। সংসদে পাশ হওয়া কৃষি বিলের বিপক্ষে থাকলেও পশ্চিমবঙ্গে বামেদের বিদ্রোহকে দমাতে প্রশাসনিক তৎপরতা তৃণমূল কংগ্রেস দেখায় কিনা তা নিয়ে চর্চা চলেছে।

গত লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে বামেদের বিরাট পতনের পাশাপাশি বিজেপির চমকপ্রদ উত্থান হয়। তার পর থেকেই বিভিন্ন এলাকায় তৃণমূল দখলে থাকা দলীয় কার্যালয়গুলি পুনরুদ্ধার করা হচ্ছে বলে দাবি বামফ্রন্টের।

বিধানসভা নির্বাচন আসন্ন। সম্প্রতি নন্দীগ্রামে বিরাট বাইক মিছিল করে সিপিআইএম। স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের অভিযোগ, নতুন করে হার্মাদ আতঙ্ক শুরু করতে চাইছে বামেরা।

শুক্রবার দেশ জুড়ে কৃষক প্রতিরোধ দিবস পালনের মাঝেই ফের নন্দীগ্রামে সিপিআইএমের সড়ক অবরোধ দলের পক্ষে স্বস্তির কারণ।

নন্দীগ্রাম-১ এরিয়া কমিটিতে অনুষ্ঠিত মিছিলে অংশ নেন পার্টির পূর্ব মেদিনীপুর জেলা সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য পরিতোষ পট্টনায়ক। ছিলেন দলের জেলা কমিটির নেতৃত্বরা। ভগবানপুর ব্লকে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের কৃষি বিলের বিরুদ্ধে অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচী।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।