নয়াদিল্লি: দিল্লি থেকে পাটনা। রাস্তাটা হাজার কিমির থেকেও কিছুটা বেশি। এই সুদূর রাস্তা পার হতে সময় লাগবে মাত্র ২ ঘন্টা। তাও আবার গাড়িতে! যে গাড়িটির কথা এখানে বলা হচ্ছে সেটি আসলেই বিশ্বের দ্রুতগতির গাড়ির রেকর্ড তৈরি করেছে। বলা হয়, এটি যখন চলে, তখন যেন মনে হয় গাড়িটি হাওয়ার সঙ্গে কথা বলছে।

গাড়িটির নাম SSC Tuatara. এটি পুরানো সমস্ত রেকর্ড ভেঙে দ্রুততম চলা গাড়ি হয়ে উঠেছে। এই গাড়ির গতি এত বেশি যে এটি দিল্লি থেকে পাটনার দূরত্ব মাত্র দুই ঘন্টার মধ্যেই উড়িয়ে দিতে পারে।

সম্প্রতি এই প্রযোজনা সংস্থার একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে। সেখানে এই গাড়ির নানান কীর্তি দেখানো হয়েছে। এর আগে সব থেকে টপস্পিড ছিল ৪৯০ কিমি প্রতি ঘন্টা। কিন্তু সেই রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে SSC Tuatara

আরও পড়ুন – ভয়াবহ আত্মঘাতী বিস্ফোরণ, স্কুল পড়ুয়া সহ মৃত ১৮

উল্লেখ্য, এই গাড়ির স্পিড কেমন তা দেখার জন্য ১০ অক্টোবর লাস ভেগাসের রাস্তায় একটি টেস্ট নেওয়া হয়। ঠিক কতটা স্পিডের রেকর্ড হয়, তা দেখার জন্য একটি বিশেষ জিপিএস মাপার ডিভাইস ও ১৫ টি কৃত্রিম উপগ্রহ ব্যবহার করা হয়েছিল।

তবে এই রেসিং গাড়িটির চালক অলিভার ওয়েবও জানিয়েছেন, এই গাড়িটি এর চেয়েও দ্রুত চলতে পারে। এর মোট ওজন রয়েছে ১২৪৭ কেজি। কোম্পানি জানিয়েছে, তাঁরা মাত্র ১০০ টি এই গাড়ি তৈরি করবে। জানা গিয়েছে, এই গাড়ির দাম প্রায় ১.৬ মিলিয়ন ডলার।

জেলবন্দি তথাকথিত অপরাধীদের আলোর জগতে ফিরিয়ে এনে নজির স্থাপন করেছেন। মুখোমুখি নৃত্যশিল্পী অলোকানন্দা রায়।