কলকাতা: “রিমেকের জায়গায় হলিউড, বলিউড আর সাউথ থেকে চুরি করে মুভি করেন এনারা৷” কমবেশি টলিউডের বহু পরিচালক, প্রযোজক, অভিনেতা, অভিনেত্রীকেই শুনতে হয় এই কথাটা৷ কোথাও কোনও মিল পেলেই চোরের অপবাদ লাগতে শুরু করে তাঁদের গায়ে৷

কেবল সমালচনায় থেমে থাকেনি৷ শুরু হয়েছে প্রায় অনেকেই মুখ খুলেছেন ট্রোলারদের বিরুদ্ধে৷ ইংরেজি ছবি ‘দ্য গ্র্যান্ড বুদাপেস্ট হোটেল’র নকল ‘শাহজাহান রিজেন্সি’৷ এই অভিযোগ অনেকেই ট্রেলার মুক্তির দিন থেকেই জানিয়েছে৷

কিছু দর্শকের দাবি পোস্টারও নাকি ইংরেজি ছবিটির নকল৷ তখন ব্যাপারটায় তেমন মন না দিলেও এবার বেশ ওয়াকিবহল হয়ে পড়েছেন পরিচালক৷ ট্যুইটারে একটি পোস্ট করে লিখেছেন, “শংকরের ‘চৌরঙ্গী’ বইয়ের কভারের আদলেই ‘শাহজাহান রিজেন্সি’র টেম্পলেট তৈরি করা হয়েছে৷ ‘দ্য গ্র্যান্ড বুদাপেস্ট হোটেল’র নয়৷”

পরিচালকের এই ট্যুইটের পর একে একে তাঁর ভক্ত এবং সমর্থকরা এগিয়ে আসে৷ ট্রোলারদের সঙ্গে কোনও বিতর্কে যেতে বারণ করেন সৃজিতকে৷ সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে ‘শাহজাহান রিজেন্সি’র ট্রেলার৷ শুরু থেকে শেষ জুড়ে এ যেন এক অন্য দুনিয়া৷ ফাইভ স্টার হোটেলের মধ্যে বাঁধা কতগুলো মানুষের জীবন৷

হোটেলরুমে আনাচে কানাচে ঘুরে ফিরে বেড়াচ্ছে তাদের জীবনের প্রতিটি অধ্যায়৷ সাধারণ হোটেল স্টাফ হোক বা এসকোর্টের কাহিনি৷ সবই সাজানো রয়েছে ‘শাহজাহান রিজেন্সি’র ট্রেলারে৷ শংকরের ‘চৌরঙ্গী’ নিয়ে ময়দানে সৃজিত। ছবির ফার্স্ট লুকে দেখা গিয়েছিল হোটেল রুমের সাইড টেবিলের উপর রাখা একটি স্ট্যান্ডিং লিফলেট৷

তাতে লেখা, ‘শাহাজাহান রিজেন্সি, বিশ্বের সেরা হোটেল’৷ ছবির মুখ্য ভূমিকায় রয়েছেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, আবির চট্টোপাধ্যায়, রুদ্রনীল ঘোষ, অঞ্জন দত্ত, অনির্বাণ ভট্টাচার্য, স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়, অঞ্জন দত্ত৷

ফাইল ছবি