মুম্বই- মা যা পরামর্শ দিয়ে গিয়েছিলেন তা-ই এখনও মেনে চলেন জাহ্নবী কাপুর। প্রায়ই শ্রীদেবীকে মনে করে বিভিন্ন পোস্ট করেন তিনি। শুধু সোশ্য়াল মিডিয়ায় পোস্টই নয়। এখনও বাধ্য মেয়ের মতোই মায়ের কথা শোনেন জাহ্নবী। সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্যমের কাছে সাক্ষাৎকারে এমনই জানান ধড়ক ছবির অভিনেত্রী।

জাহ্নবীকে শ্রীদেবী বলেছিলেন, ভিতর থেকে একজন ভাল মানুষ হওয়া প্রয়োজন। ক্যামেরায় সবটাই ধরা পড়ে। জাহ্নবী বলছেন, “মা আমায় সব সময়ে বলত তুমি যা ভাববে বা মনের মধ্যে যা চলবে, তার ছাপ তোমার মুখে পড়বে। তাই একজন অভিনেতার ভিতর থেকে ভাল মানুষ হয়ে ওঠাটা প্রয়োজন। কারণ ক্যামেরায় সবটাই ধরা পড়ে।”

কিছুদিন আগেই জাহ্নবী এক সংবাদমাধ্যমের কাছে বলেছিলেন, তাঁর বিয়ে সম্পর্কেও বিশেষ মতামত ছিল শ্রীদেবীর। জাহ্নবী জানিয়েছিলেন, শ্রীদেবী চাইতেন না তাঁর মেয়ে নিজের পছন্দে কারোকে বিয়ে করুক। কারণ জাহ্নবী নাকি ভাল মন্দ না ভেবেই প্রেমে পড়েন।

ভবিষ্যতে কেমন বিয়ে করবেন, সেই ব্যাপারেও জাহ্নবী কথা বলেছিলেন। জাহ্নবী সেই সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, আমি চাই আমার বিয়েটা সাবেকি কায়দায় হোক। আমার বেশি আড়ম্বর, জাঁক জমক পছন্দ নয়। আমি চাই আমার বিয়ে তিরুপতির মন্দিরে হোক। আমি একটা কাঞ্জিভরম শাড়ি পরব। খাওয়া দাওয়ায়ও থাকবে দক্ষিণী খাবার। আমার প্রিয় ইডলি, সম্বর, কার্ড রাইস ও ক্ষীর আমার খুব পছন্দ।

কেমন জীবনসঙ্গী চাই তাও বলেছিলেন অভিনেত্রী। জাহ্নবীর কথায়, তাকে খুব গুণী ও নিষ্ঠাবান হতে হবে। আমি যেন তার থেকে কিছু শিখতে পারি। রসবোধ থাকা আবশ্য়িক। আর অবশ্যই আমায় খুব ভালবাসতে হবে।

প্রসঙ্গত, ২০১৮-র ফেব্রুয়ারিতে শ্রীদেবীর আকস্মিক মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছিল বলিউডে। শোকস্তব হয়ে পড়েছিল শ্রীদেবীর পরিবার। সেই সময়ে জাহ্নবীর প্রথম ধড়ক-এর কাজ চলছিল। শ্রীদেবীর মৃত্যুর কয়েক মাস পরেই মুক্তি পেয়েছিল সেই ছবি।