কলম্বো: ভারতের বিরুদ্ধে টেস্ট ও ওয়ান ডে সিরিজে লজ্জার হারের পর ম্যাথিউজদের নির্বাচকের পদ থেকে ইস্তফা দিলেন জয়সূর্য৷

টেস্টে ৩-০ পর্যুদস্ত হওয়ার পর ওয়ান ডে সিরিজেও কোহলিদের সামনে ধরাশায়ী শ্রীলঙ্কা৷ ঘরের মাঠে ম্যাথিউজদের এমন লজ্জাজনক পারফরম্যান্সের পর তাই জয়সূর্যর নেতৃত্বাধীন নির্বাচক কমিটির ভূমিকা নিয়েও বিভিন্ন মহলে ক্ষোভ শুরু হয়৷

চাপের মুখে এক বছরের মাথায় দায়িত্ব থেকে সড়ে দাঁড়ালেন সনৎ৷এদিন দেশের ক্রীড়ামন্ত্রী দয়াসারি জয়শেখরের কাছে চিঠি দিয়ে পদত্যগের কথা জানিয়ে দেন তিনি৷ জয়সূর্যের পাশাপাশি তাঁর নেতৃত্বাধীন চার সদস্যও এদিন পদত্যাগের কথা জানিয়েছে৷ ২০১৬ সালের মে মাস থেকেই মালিঙ্গাদের ক্রিকেট নির্বাচকের দায়িত্ব পেয়েছিল জয়সূর্যের কমিটি৷

কোহলিদের বিরুদ্ধে লঙ্কান দলের হতশ্রী পারফরম্যান্সে চটে নির্বাচকদের একহাত নিয়েছিলেন রণতুঙ্গা৷ ক্রিকেটারদের দায়বদ্ধতার পাশাপাশি নির্বাচক কমিটিও লঙ্কান ক্রিকেট ম্যানেজমেন্টের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন প্রাক্তন সিংহলী অধিনায়ক৷

এখানেই শেষ নয়, পাল্লেকেলের তৃতীয় ওয়ান ডে ম্যাচে দলের জঘন্য পারফরম্যান্স সহ্য করতে না পেরে ক্রিকেট সমর্থকরা বোতল ছুঁড়ে প্রতিবাদ শুরু করে৷ যার জেরে ফিল্ড আম্পায়ারদের বেশ কিছুক্ষণ খেলা বন্ধ রাখতে হয়৷ এরপর গ্যালারি ফাঁকা করে ফের শুরু ম্যাচ শুরু করা হয়৷

শেষ এক বছরে চন্দিমাল-থারাঙ্গাদের পারফরম্যান্সের গ্রাফও ক্রমশ নিম্নমুখী৷ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে কোয়ার্টার ফাইনাল খেললেও ধারাবাহিকতা নেই বললেই চলে৷ জুনে ইংল্যান্ডের মাটিতে মিনি বিশ্বকাপের পর জিম্বাবোয়ের কাছে টেস্ট সিরিজ জিতলেও সিংহলী দল লজ্জাজনক ভাবে ৩—২ একদিনের সিরিজ হেরে বসে৷ এরপর থেকেই জয়সূর্যের কমিটি ভূমিকা নিয়ে ক্রিকেটমহলে সমালোচনার ঝড় বইতে শুরু করে৷