দুবাই: করোনা মহামারীর কারণে ২০২০ টি-২০ বিশ্বকাপ স্থগিত হয়ে গিয়েছে৷ তবে ২০২১ সালের টি-২০ বিশ্বকাপ ভারতের মাটিতে হবে নির্ধারিত সময়ে৷ আইসিসি আগেই এমনটা জানিয়েছে৷ তবে ভারত বিশ্বকাপ আয়োজন করতে না-পারলে তা চলে যেতে পারে শ্রীলঙ্কা বা সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে৷

২০২১ টি-২০ বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ ভারতের পাশাপাশি ব্যাক-আপ হিসেবে দ্বীপরাষ্ট্র এবং মরু শহরকে রাখছে আইসিসি৷ ক্রিকইনফো-এর এক প্রতিবেদন এমনটাই দাবি করা হয়েছে৷ গত সপ্তাহে আইসিসি নিশ্চিত করেছে যে, ফিউচার ট্যুর প্রোগ্রামের সময়সূচী অনুসারে আগামী বছরের টি-২০ বিশ্বকাপ হবে ভারতে৷ আর স্থগিত হয়ে যাওয়া ২০২০ টি-২০ বিশ্বকাপ হবে ২০২২ সালে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে৷

তবে যে কোনও বিশ্ব ইভেন্টের জন্য ব্যাক-আপ ভেন্যু তালিকাভুক্ত করা স্ট্যান্ডার্ড প্রোটোকল। মহামারীর কারণে সম্ভাব্য ব্যাক-আপ ভেন্যুগুলি চিহ্নিত করে প্রতিটি আইসিসি ইভেন্টের জন্য স্ট্যান্ডার্ড অনুশীলন এবং অতিরিক্ত তাত্পর্য নেওয়া৷ করোনা মহামারীর কারণে চলতি বছরের আইপিএল দেশের মাটিতে করতে পারেনি বিসিসিআই৷

মার্চ মাস থেকে স্থগিত হয়ে থাকা ২০২০ আইপিএল অবশেষে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিসিআই৷ মরু শহরের তিনটি প্রধান শহর আবুধাবি, দুবাই এবং শারজায় হবে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট লিগ৷ আইপিএলের ত্রয়োদশ সংস্করণ শুরু হবে ১৯ সেপ্টেম্বর৷ ফাইনাল ১০ নভেম্বর৷ করোনা আবহে আইসিসি-র প্রোটোকল মেনেই আইপিএল আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিসিআই৷

ভারতে করোনা সংক্রমণ ক্রমশ বেড়েই চলেছে৷ সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, ভারত এই মুহূর্তে বিশ্বের তৃতীয় সবচেয়ে করোনা ক্ষতিগ্রস্থ দেশ৷ সরকারি পরিসংখ্যান বলছে, এখন পর্যন্ত ২০ লক্ষের বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন৷ আর মারা গিয়েছেন ৪৫,০০০ বেশি মানুষ৷ সুতরাং আগামী বছরও ভারতের মাটিতে বিশ্বকাপ হওয়া নিয়ে সংশয় থেকেই যাচ্ছে৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।