ষষ্ঠ ওভারে কেকেআরের ঝুলিতে ৮ রান। পাওয়ার প্লে’র শেষে নাইটরা ৬১/২

ক্রিজে এলেন নীতিশ রানা। ৫ ওভার শেষে কেকেআর ৫৩/২

নাইটদের দ্বিতীয় উইকেটের পতন। খলিলের দ্বিতীয় ওভারে বিজয় শঙ্করের হাতে ধরা পড়লেন গিল ৩(৪)

ক্রিজে এলেন শুভমান গিল। ৩ ওভার শেষে কেকেআর ৪৪/১

নাইটদের প্রথম উইকেটের পতন। খলিলের চতুর্থ বলে ক্লিন বোল্ড নারিন। ফিরলেন ৮ বলে ২৫ রান করে

বিধ্বংসী মেজাজে সুনীল নারিন। বাউন্ডারির হ্যাটট্রিকে স্বাগত জানালেন খলিল আহমেদকে

২ ওভার শেষে কেকেআর ২৮/০

সফল ওভার কেকেআরের জন্য। নাদিমের প্রথম ওভার থেকে এল ১৮ রান

প্রথম ওভার শেষে কেকেআর বিনা উইকেটে ১০

ব্যাট হাতে ক্রিজে দুই নাইট ওপেনার ক্রিস লিন ও সুনীল নারিন

টানা চার ম্যাচ হারে দেওয়ালে পিঠ ঠেকে গিয়েছে। এরমধ্যে শেষ ৩ ম্যাচে ঘরের মাঠে খেলার সুযোগ পুরোপুরি নিতে ব্যর্থ নাইটরা। রবিবাসরীয় হায়দরাবাদে নাইটদের ফের অ্যাওয়ে অভিযান। লিগ টেবিলে লড়াই পাঁচ বনাম ছয়ের। টানা তিন ম্যাচ হারের পর গত ম্যাচে লিগ টপার চেন্নাইকে হারিয়ে মনোবল ফিরে পেয়েছে সানরাইজার্স। উল্টোদিকে কাঙ্খিত জয়ে লিগ টেবিলে অবস্থান উন্নত করার লক্ষ্যে নাইটব্রিগেড।

হোম ম্যাচে রবিবাসরীয় উপ্পলে টসভাগ্য সঙ্গ দিল না নাইট দলনায়কের। টস জিতে পার্পল ব্রিগেডকে প্রথমে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানান সানরাইজার্স অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। জয়ের সরণিতে ফিরতে নাইট দলে এদিন ৩টি পরিবর্তন। গত ম্যাচে খারাপ পারফরম্যান্সের পর সানরাইজার্সের বিরুদ্ধে একাদশ থেকে বাদ পড়লেন রবিন উথাপ্পা, কুলদীপ যাদব ও প্রসিধ কৃষ্ণা। পরিবর্তে দলে এলেন রিঙ্কু সিং, কেসি কারিয়াপ্পা এবং পৃথ্বী রাজ।

উল্টোদিকে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ দল অপরিবর্তিত।

একনজরে নাইট একাদশ: লিন, নারিন, গিল, রানা, রাসেল, কার্তিক (অধিনায়ক/উইকেটরক্ষক), রিঙ্কু সিং, চাওলা, কারিয়াপ্পা, গার্নি ও পৃথ্বী রাজ।

একনজরে সানরাইজার্স একাদশ:  ওয়ার্নার, বেয়ারস্টো, উইলিয়ামসন, শঙ্কর, দীপক হুডা, ইউসুফ পাঠান, রশিদ খান, ভুবনেশ্বর, সন্দীপ শর্মা, নাদিম ও খলিল আহমেদ।