মাদ্রিদ: চুল যে মানুষের প্রিয় জিনিস, সেটা বোঝা যায় চুল কাটার সময়। একেক জন একেক রকমভাবে চুল কাটতে পছন্দ করেন। তবে, চুলের কাটিং অনেক রকম হলেও, চুল কাটতে হয় কিন্তু কাঁচি দিয়ে। এক্ষেত্রে চুল কাটার জন্য কোনও সেলুনে হয়তো হাত কাঁচি ব্যবহার না করে বড়জোর মেশিনের কাঁচি ব্যবহার করে। কারণ চুলের মত পাতলা সূক্ষ্ম জিনিস কাটার জন্য কাঁচির চেয়ে ভালো কিছু যে নেই, সে বিষয়ে একমত হবেন সবাই৷

তবে ব্যতিক্রম ঘটনাও আছে, মশা মারতে কামান দাগার মত চুল কাটতেও তলোয়ার চালান অনেকে! স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদের এক সেলুনে ঠিক এইরকম ব্যতিক্রমি। সেলুনের মালিকের নাম আলবার্তো ওলমেদো। তিনি চুল কাটেন তলোয়ার এবং আগুন দিয়ে৷

আলবার্তো ওলমেদোর চুল কাটা দেখলে যে কেউ তাজ্জব বনে যাবেন৷ কারণ, তিনি চুল কাটেন আগুন এবং তলোয়ার দিয়ে। এভাবে চুল কাটা যে একটু অদ্ভুত, সে ব্যাপারে আলবার্তোও সবার সঙ্গে একমত। তিনি স্বীকার করেছেন যে, তার এই পদ্ধতি খানিকটা মধ্যযুগীয় বর্বর পদ্ধতি, তবে এই পদ্ধতিতে তিনি সিদ্ধহস্ত। তলোয়ার দিয়ে চুল কাটলে তিনি সবদিক সমানভাবে কাটতে পারেন। তিনি বলেছেন, সফল হতে গেলে অনেক সময় আমাদের উচিত খানিকটা কল্পনাশক্তি কাজে লাগানো। তাতে ভালো ফল পাওয়া যায়।

ওলমেদোর পক্ষ থেকে একজন নারী মুখপাত্র সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, আমরা মক্কেলের চাহিদা মেটাতে কিছু ব্যতিক্রম পদ্ধতি ব্যবহার করি৷ কারণ কিছু কিছু হেয়ার স্টাইলের ক্ষেত্রে কাঁচি দিয়ে ভালো ফল পাওয়া যায় না।
নিচের এই ভিডিওটিতে দেখা যাবে আলবার্তো ওলমেদো  কী নিঁপুণ দক্ষতায় আগুন এবং তলোয়ার দিয়ে চুল কাটছেন-

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ