করোনা পরবর্তী সময়ে সাধারণ মানুষের জীবন কার্যত বদলে গিয়েছে। গোটা বিশ্বের মানুষকে নতুন করে শুরু করতে হয়েছে নিজেদের স্বাভাবিক ছন্দ। পাশাপাশি মানুষের জীবনে এই মুহূর্তে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে ওয়ার্ক ফ্রম হোম। আর এই ওয়ার্ক ফ্রম হোমের জেরে বাড়ি বসেই সকলকে কাজ করতে হচ্ছে। আর সেই কারণে বাজারে এসেছে একাধিক নতুন উপাদান।

 

ওয়ার্ক ফ্রম হোমের জেরে সাধারণ মানুষের ব্যক্তিগত জীবনের মধ্যে প্রবেশ করেছে কাজ। আর বাড়ি বসে কাজ করার ক্ষেত্রে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ পরিবেশ। অনেক সময়ে কাজের জায়গার পরিবেশ এবং বাড়ির পরিবেশের মধ্যে মিল না থাকার ফলে অসুবিধার মধ্যে পড়তে হয়েছে মানুষজনকে। আর সেই কারণেই এবারে গ্রাহকদের জন্য অ্যামাজনের তরফে নিয়ে আসা হয়েছে নতুন spacecrafts work from home folding computer table। এর ফলে বাড়ি থেকে কাজের ক্ষেত্রে কোন অসুবিধা হবে না।

অনেক সময়ে সঠিক জায়গার অভাবে বাড়িতে কাজ করতে হলে তার প্রভাব পরে শরীরের উপরেও। আর তাই যাঁরা এই মুহূর্তে ওয়ার্ক ফ্রম হোম করছেন তাদের কাছে এই spacecrafts work from home folding computer table যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। অ্যামাজনের তরফে এই টেবিলের উপরে রয়েছে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়। যার ফলে মাত্র ১৯৯৯ টাকাতে। এর ফলে গ্রাহকেরা বাঁচাতে পারবেন ২০০১ টাকা। তবে ডেলিভারির জন্য গ্রাহকদের অতিরিক্ত ১৯০ টাকা দিতে হবে।

জানানো হয়েছে hdfc ব্যাংকের কার্ড ব্যবহার করে এই টেবিল কিনলে গ্রাহকেরা পাবেন ১০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়। অন্যদিকে অ্যামাজন পে বা icici ব্যাংকের কার্ড মারফত কিনলে পাবেন ৫ শতাংশ পর্যন্ত ক্যাশব্যাক। পাশপাশি কাঠের হওয়ার ফলে সহজে ভাঙ্গার কোন সম্ভবনা নেই। ঘরের যে কোন কোনে রেখে সহজেই কাজ করতে পারবেন গ্রাহকেরা। আর এর ফলে মনে করা হচ্ছে গ্রাহকদের কাছে ক্রমেই গুরুত্ব বাড়বে অ্যামাজনের। একাধিক এই ধরনের জিনিস বাজারে নিয়ে আসার ফলে মানুষজনের সুবিধা হবে। আর ছাড় দেওয়ার ফলে অতিরিক্ত মানুষজন আকর্ষিত হবেন অ্যামাজন থেকে কেনাকাটা করার ক্ষেত্রে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।