লখনউ: অখিলেশ যাদব ও মায়াবতীর দলের নতুন নাম দিলেন উত্তরপ্রদেশের উপমুখ্যমন্ত্রী কেশব প্রসাদ মৌর্য৷ তাঁর মতে, অখিলেশের দল সমাজবাদী পার্টি হল ‘সমাপ্ত পার্টি’৷ আর মায়াবতীর দল বহুজন সমাজ পার্টি হল ‘বিলকুল সমাপ্ত পার্টি’৷

এদিন একটি জনসভায় যোগ দিয়ে কেশব প্রসাদ মৌর্য বলেন, ‘‘আমি সবসময় বলি সপা হল সমাপ্ত পার্টি আর বসপা হল বহুজন সমাপ্ত পার্টি৷’’ বাংলায় ‘সমাপ্ত’ কথার অর্থ হল শেষ৷ আর ‘বিলকুল সমাপ্ত’ কথার অর্থ একদম শেষ৷ অখিলেশ ও মায়াবতী ছাড়াও কংগ্রেসকেও তোপ দাগেন কেশব প্রসাদ মৌর্য৷

 

যোগীর উপমুখ্যমন্ত্রীর দাবি, উত্তরপ্রদেশে কংগ্রেস এবার নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে৷ যে দুটি কেন্দ্রে কংগ্রেসের অস্তিত্ব আছে সেখানে এবার পদ্ম ফুটবে৷ কেশব চন্দ্র বলেন, ‘‘রাজ্য থেকে কংগ্রেস প্রায় মুছে গিয়েছে৷ মাত্র দুটি কেন্দ্রে তারা বেঁচে আছে৷ একটি আমেথি৷ অপরটি রায়বেরিলি৷ কিন্তু এবার এই দুটি কেন্দ্রেও পদ্ম ফুটবে৷ মানুষ কংগ্রেসকে ছুড়ে ফেলবে৷’’

মোদীর সমালোচনা করায় গত সপ্তাহে কেশব প্রসাদ মৌর্য বসপা সুপ্রিমো মায়াবতীকে তীব্র আক্রমণ করেন৷ মায়াবতী বলেছিলেন, মোদীর মত মুলায়ম সিং যাদব ভুয়ো ওবিসি নেতা নন৷ সপা প্রতিষ্ঠাতা মুলায়ম সিং হলেন পিছড়েবর্গের প্রকৃত নেতা৷ মোদী নিজেকে পিছিয়ে পড়া সম্প্রদায়ের বলে জানালেও সেটা ভুয়ো৷ মুলায়ম হলেন প্রকৃত আসল ওবিসি নেতা৷ মোদীকে আক্রমণ করায় মৌর্য তখন দলিত নেত্রীকে টার্গেট করে বলেছিলেন, ‘‘আসলে মায়াবতী ভয় পেয়েছেন৷ দু’জনে নকল বুয়া-ভাটিজা সেজেছেন৷ আর সমালোচনার নামে প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ করছেন৷’’

 

শত্রুতা ভুলে উত্তরপ্রদেশে সমাজবাদী পার্টি ও বহুজন সমাজ পার্টি জোট বেধে লোকসভা ভোটে লড়ছে৷ রাজ্যের ৮০টি আসনের মধ্যে দুটি দলই ৩৮-৩৮ আসনে লড়ছে৷ তবে আমেঠি ও রায়বেরিলিতে তারা কোনও প্রার্থী দেননি৷ ওই দুটি আসন কংগ্রেসকে ছেড়ে দিয়েছেন অখিলশ ও মায়াবতী৷ ১৯৯৩-তে উত্তরপ্রদেশে জোট গড়েছিল বিএসপি-এসপি ৷ কাঁসিরাম এবং মুলায়ম যাদব ছিলেন দলের নেতৃত্বে ৷ আবারও প্রায় দু’দশকেরও বেশি সময় পর রাজ্যে ক্ষমতায় ফিরতে চলেছে জোট ৷