কলকাতা: ‘পিঙ্ক বল টেস্ট’ উপলক্ষে কলকাতা শহর এখন গোলাপি৷ কিন্তু প্রথম দিনে ভারত-বাংলাদেশ ম্যাচ দেখতে আসা শোভন-বৈশাখী ছিল যেন কিছুটা বে-রঙিন৷ পিঙ্ক তো দূরের কথা,এদিন চিরাচরিত পোশাকেও দেখা গেল না তাদের৷

বরাবরই শোভন-বৈশাখীর পোশাকের রং সবার নজর কেড়েছে৷ যেখানেই দু’জনে গিয়েছেন,বেশির ভাগ সময়েই দেখা গিয়েছে একই রঙের পোশাকে৷ এ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় একাধিক ট্রোল হয়েছে৷ পোশাক নিয়ে সংবাদ মাধ্যমের প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়েছে বহুবার৷ সেখানে শোভনবাবু বিষয়টি হেসে উড়িয়ে দিলেও, বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন,বিষয়টি এক সময় ছিল কাকতালীয়৷ কিন্তু আমাদের দু’জনের পোশাক নিয়ে সমালোচনা শুরু হতেই,কিছুটা ইচ্ছে করেই দু’জনে একই রঙের পোশাক পরে বের হই৷

শুক্রবার কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় ও তার বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় ইডেনে খেলা দেখতে এসেছিলেন৷ পিঙ্ক বল টেস্ট দেখে বেরিয়ে যাওয়ার সময় দেখা গেল,দু’জনের আলাদা রঙের পোশাক৷ একজনের পরনে সাদা চেক সার্ট,আর বান্ধবীর পড়নে ছিল অন্য রঙের পোশাক৷

মাস খানেক আগেও যখন সল্টলেক সিবিআই দফতরে দু’জন এসেছিলেন,তখনও তাদেরকে দেখা গিয়েছিল একই রঙের পোশাকে৷ শোভন চট্টোপাধ্যায় পরেছিলেন গোলাপি রঙের সার্ট, আর বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছিল গোলাপি রঙের শাড়ি৷ কিন্তু এখন যখন ‘পিঙ্ক বল টেস্ট’ উপলক্ষে কলকাতা শহর গোলাপি রঙে সেজে উঠেছে,তখন তাদের পোশাকে ছিল না গোলাপি আভা৷

কলকাতার সর্বোচ্চ বহুতল দ্য ৪২ থেকে শুরু করে লেকটাউনের বিগ বেন, হাওড়া ব্রিজ সবই আজ গোলাপি৷ এক কথায় গোটা শহরটাই গোলাপি৷ খেলা দেখতে আসা মানুষগুলোও যেন গোলাপি৷ অর্থাৎ অনেকেই গোলাপি পোশাক পরে এসেছেন খেলা দেখতে৷